এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তান ছাড়ার হুমকি দিল ফেসবুক, গুগল, টুইটারের মতো সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট, বিপাকে পাকিস্তান

পাকিস্তান ছাড়ার হুমকি দিল ফেসবুক, গুগল, টুইটারের মতো সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট, বিপাকে পাকিস্তান



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পাকিস্তানে স্বাধীনভাবে কাজ করা যাচ্ছে না। আর তাই পাকিস্তান থেকে নিজেদের সংস্থার পাততাড়ি গুটিয়ে ফেলতে চাইছে বিভিন্ন সোশাল মিডিয়া। জানা গেছে, স্বাধীনভাবে কাজ করতে না দিলে পাকিস্তান ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছে ফেসবুক, গুগল, টুইটারের মতো একাধিক জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট।

জানা গেছে, ইমরান খান নতুন করে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই একের পর এক নিয়মের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে, এই সোশ্যাল মিডিয়াগুলোর ওপর। জানা গেছে, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলি নাকি কোনো ইসলাম বিরোধী পোস্টই রাখতে পারবে না বলেই জানান হয়েছে। সেইসঙ্গে মানুষের খোলামেলা আলোচনার পথও যাতে বন্ধ করে দেওয়া যায়, সেই চেষ্টাই করছে ইমরানের সরকার।

ফলত এত নিয়মবিধি সোশ্যাল মিডিয়াগুলির ক্ষেত্রে মানা সম্ভব হবে না বলে আগেই ইমরান সরকারকে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু তাতেও পরিস্থিতি পরিবর্তন না হওয়ায় এবার ফেসবুক-টুইটার-গুগল সহ কয়েকটি সোশ্যাল নেটওয়ার্কের জোট এশিয়া ইন্টারনেট কোয়ালিশন (এআইসি)-র তরফে পাক প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

যেখানে নাকি সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, সরকারের জারি করা বিধিনিষেধ সংশোধন করতে হবে। তা না হলে এই সংস্থাগুলো পরিষেবা বন্ধ করতে বাধ্য হবে। জানা গেছে ইমরান সরকারের নতুন নিয়ম বিধিতে একাধিক নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়েছিল। যার মধ্যে বলা হয়েছিল,
১) সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিগুলিকে পাকিস্তানে পরিষেবা দিতে হলে ইসলামাবাদে অফিস থাকতে হবে।
২) ইসলাম বিরোধী কোনও পোস্ট বা ধর্মীয় পোস্ট শেয়ার করা চলবে না।
৩) পাক সরকার চাইলে কোনও পোস্ট তুলে নিতে পারে।
৪) সোশ্যাল সাইটগুলিতে যে সমস্ত পোস্টে পাকিস্তান সরকার অনুমতি দেবে, কেবল সেগুলোই সামনে আনা যাবে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

শুধু তাই নয়, এছাড়া সরকার চাইলে প্রয়োজনে সেই ডেটা স্টোর করে রাখতে হবে সংস্থাগুলিকে। সেইসঙ্গে কর্তৃপক্ষের মনে হলে তারা তথ্য মুছে ফেলতেও পারে বলেও জানান হয়। আর এই শর্ত গুলোই শেষপর্যন্ত মেনে নিতে পারেনি সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিগুলি। তাদের কথায়, জোট এআইসি-র দাবি, পাক সরকার যে নিয়ম বেঁধে দিয়েছে তাতে সাধারণ মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া তাদের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না।

অন্যদিকে যেহেতু প্রত্যেক ডিজিটাল মিডিয়ারই নিজস্ব কিছু বিধি, নিয়ম থাকে, তাই সরকারের নতুন নির্দেশিকায় সেগুলো মানা যাচ্ছে না বলেই জানান হয়। সেইসঙ্গে ব্যবহারকারীদের সুরক্ষাও নিশ্চিত নয় বলেও জানান তাঁরা। কারণ নির্দেশিকা অনুযায়ী পাকিস্তান সরকার চাইলেই ব্যক্তিগত তথ্যে নজরদারি করতে পারে বলেই জানা গিয়েছিল।

যদিও পাকিস্তানে এর আগে লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপ বিগো নিষিদ্ধ করা হয়। কারণ সেখানে নাকি অনৈকিতকার অভিযোগ আসে। তাছাড়া টিকটকও নিষিদ্ধ হয়ে গেছে বলেই জানা যায়। যদিও এক্ষেত্রে চূড়ান্ত সতর্কবার্তা দেওয়ার পরেও টিকটকে অশ্লীল পোস্ট বন্ধ হয়নি বলেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেই জানিয়েছিল পাকিস্তান সরকার। তবে এরই মধ্যে এরকম একটি খবরে পাকিস্তান সরকার নতুন করে সমস্যায় পড়তে পারে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!