এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > ওরা মমতাকে খুন করতে পারে। ‘ বিস্ফোরক তৃণমূলের মন্ত্রী!

ওরা মমতাকে খুন করতে পারে। ‘ বিস্ফোরক তৃণমূলের মন্ত্রী!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  যতই এগিয়ে আসছে আগামী ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন, ততোই সংঘর্ষ বাড়ছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল ও রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপির মধ্যে। দুই দলের কর্মীদের মধ্যে যেমন সংঘর্ষ বাড়ছে, তেমনি দুই দলের নেতা-নেত্রীরাও একে অপরকে নানাভাবে অভিযুক্ত করছে। এই পরিস্থিতিতে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ভাঙ্গড়ের বোদরা কালিতলাতে এক রাস্তার উদ্বোধন এসে বিজেপির প্রতি বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তিনি অভিযোগ করেছেন যে, বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুন করতে পারে, এবং সেই দোষ চাপিয়ে দিতে পারে তৃণমূল নেতৃত্বের ঘাড়ে।

আগামী বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে যখন রাজ্যজুড়ে একটা রুদ্ধশ্বাস পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার কনভয়ে আক্রমণকে কেন্দ্র করে তেতে উঠেছে রাজ্য রাজনীতি। এই পরিস্থিতিতে গতকাল ভাঙড়ের বোদরা কালিতলাতে এক রাস্তার উদ্বোধন করতে এসে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানালেন, ” ওরা মমতাকে খুন করতে পারে। মমতার সঙ্গে ভোটের লড়াই করে না পারলে তাহলে গোপনে লোক দিয়ে খুন করে অন্যের নামে দোষ চাপিয়ে দিতে পারে। ”

ভাঙ্গড়ে রাস্তার উদ্বোধন অনুষ্ঠান থেকে পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় আরো জানালেন যে, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা এই জেলায় বৈঠক করতে এসেছিলেন। তাঁর সহকর্মীদের গাড়ির কাঁচ ভাঙা হয়েছিল। কিভাবে গাড়ির কাঁচ ভেঙেছে? কে তা ভেঙেছে? তার তদন্তের দাবি জানালেন তিনি। তিনি জানালেন যে, তাঁরা সরকারে আছেন। তাঁর দাবি, তারা তদন্ত করে দেখেছেন যে, এই গণ্ডগোল না করলে বিজেপির প্রচার হবে না। তাই নিজেরাই লোক নিয়োগ করে এসব গন্ডগোল পাকিয়েছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বিজেপির প্রতি চ্যালেঞ্জ করেছেন যে, এ বিষয়ে তদন্ত করা হোক। তাঁর কথা যদিও অসত্য বলে প্রমাণিত হয়, তবে রাজনীতি ছেড়ে দেবেন তিনি। আর যদি বিজেপি অসত্য বলে প্রমাণিত হয় তবে তাদের নাকে খত দিতে হবে। মন্ত্রী অভিযোগ করেছেন যে, রাজ্যের বাইরে থেকে লোক নিয়ে এসে রাজ্যে অশান্তি পাকাচ্ছে বিজেপি। বাইরে থেকে লোক নিয়ে শান্ত বাংলাকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে বিজেপি। বিজেপির একটাই চেষ্টা, যা হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরিয়ে দেওয়া। কিন্তু তিনি দাবি করেছেন যে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হলেন বাংলার মা। মাকে সরানো যায় না।

কিছুদিন আগে এক দলীয় বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ” কেউ কেউ আমার জায়গাটা নিতে চাইছে। সেটা তো আমার মৃত্যুর পরেই সম্ভব। অর্থাত্‍ সে আমার মৃত্যু কামনা করছে। কিন্তু আমার মৃত্যু তো আমার হাতে নেই, ঈশ্বরের হাতে। ” মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য একান্তই অভিমান ছিল। কিন্তু তাঁর মৃত্যুর কথা বলায়, তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। এবার আবার মুখ্যমন্ত্রীর হত্যার আশঙ্কা প্রকাশ করে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দিলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!