এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > এবারের ভোটে ঝাড়খন্ড-বিহারের দুস্কৃতীদের কতটা আটকানো যাবে তার উপরেই ঝুলে মালদার দুই আসনের ভাগ্য

এবারের ভোটে ঝাড়খন্ড-বিহারের দুস্কৃতীদের কতটা আটকানো যাবে তার উপরেই ঝুলে মালদার দুই আসনের ভাগ্য



গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় ভিন রাজ্য থেকে অনেক দুষ্কৃতীকে ভাড়া করে এনে গণতন্ত্রকে প্রহসনে পরিণত করা হয়েছে বলে বিভিন্ন সময়ই অভিযোগ তুলতে দেখা দিয়েছিল বিরোধীদের। আর যাকে কেন্দ্র করে শাসক বনাম বিরোধীদের তীব্র চাপানউতোর সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু এবার লোকসভা নির্বাচনে সেই পরিস্থিতিকে এড়িয়ে যাতে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করা যায় তার জন্য তৎপর হতে শুরু করেছে প্রশাসন। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বিহার ও ঝাড়খণ্ডের মত সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে নির্বাচন কমিশন এবং পুলিশ সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে শুরু করেছে।

ইতিমধ্যেই বিভিন্ন গ্রামে নাকা চেকিং বসিয়ে তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি বিভিন্ন রাস্তার পয়েন্টগুলোতেও বিভিন্ন রুটের গাড়ি থামিয়ে তল্লাশি চলছে। জানা গেছে, মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর, রতুয়া, মানিকচক – বিশেষত বিহার ও ঝাড়খণ্ডের সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে নাকা চেকিং বসানো হয়েছে। প্রায় ৩৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি মোট ৫৩ কোম্পানি বাহিনী টহল দেবে। এদিন এই প্রসঙ্গে মালদহ জেলার ডেপুটি পুলিশ সুপার বিপুল মজুমদার বলেন, “জেলাজুড়ে বিভিন্ন এলাকায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর টহলদারি চলছে। পাশাপাশি নাকা চেকিংও চলছে অতিরিক্ত জেলাজুড়ে।”

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু এত নিরাপত্তার মাঝেও কি ভোট শান্তিপূর্ণ হবে? এদিন এই প্রসঙ্গে উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের বাম প্রার্থী বিশ্বনাথ ঘোষ বলেন, “তৃনমূল ও বিজেপি এবারের নির্বাচনে বুথ ক্যাপচার করার চেষ্টা করছে। মানুষ স্বাধীনভাবে গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করলে ওরা কেউ জিততে পারবে না।” অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে মালদা জেলা কংগ্রেসের সভাপতি মোস্তাক আলম বলেন, “নির্বাচন যাতে প্রহসনে পরিনত না হয়, তার জন্য আমরা নাকা চেকিংয়ের দাবি জানিয়েছিলাম। আমাদের দাবিকে মান্যতা দেওয়া হয়েছে।”

এদিকে বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে শাসকদলের সন্ত্রাসের কথা তুলে ধরে লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট হলে অনেকটাই সুষ্ঠুভাবে হবে বলে জানান মালদহ জেলা বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি শ্যামচাঁদ ঘোষ। তবে বিরোধীদের পক্ষ থেকে বিগত পঞ্চায়েতে শাসকের বিরুদ্ধে বুথ দখল ও সন্ত্রাসের অভিযোগ তোলা হলে এদিন সেই প্রসঙ্গে মুখ খুলে উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মৌসম বেনজির নূর বলেন, “বিরোধীদের কথা নিয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবেই হবে।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে লোকসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে হবে বলে আশ্বাস দিলেও বিগত পঞ্চায়েতে শাসকের সন্ত্রাসের কথা তুলে ধরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদারের দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা। অতীত অভিজ্ঞতা থেকে স্পষ্ট – ঝাড়খন্ড ও বিহারের দুষ্কৃতীদের মালদা জেলা জুড়ে অবাধ গতিবিধি বন্ধ করা না গেলে কিছুতেই নির্বাচন সুষ্ঠু সম্ভব নয়। এই কথা ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনকে দ্বর্থ্যহীন ভাষায় জানিয়েছে বিরোধীরা – আর তাই ভোটের আগে বিহার ঝাড়খণ্ড সীমান্তে সেই নিরাপত্তা কড়া হওয়ায় খুশির হাওয়া বিরোধী শিবিরে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!