এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > OMG! ভারতে করোনা ভ্যাক্সিন তৈরী হতে এখনও কতদিন লাগবে জানিয়ে দিলেন WHO-এর প্রধান গবেষক

OMG! ভারতে করোনা ভ্যাক্সিন তৈরী হতে এখনও কতদিন লাগবে জানিয়ে দিলেন WHO-এর প্রধান গবেষক



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – ভারতের করোনার পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ থেকে খারাপতর হয়ে পড়ছে। ইতিমধ্যেই ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২৬ লাখের কাছাকাছি চলে গেছে। প্রতিদিনের নতুন করে করন আক্রান্তের সংখ্যাও বহুদিন আগেই ৫০০০০ এর গণ্ডি অতিক্রম করেছে। আর প্রতিদিনের মৃত্যুর সংখ্যাটাও কম নয়।

গড়ে প্রতিদিন প্রায় হাজারের কাছাকাছি মানুষ করোনায় প্রাণ হারাচ্ছেন। ইতিমধ্যে করোনার কারণে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা ৫০০০০ এর গণ্ডি অতিক্রম করে গেছে। এই ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির মধ্যে দেশের প্রতিটি মানুষ অপেক্ষা করে আছেন করোনা টিকা হাতে পাবার জন্য।

গত মাসে এরকম একটি খবর সংবাদমাধ্যমে ভেসে এসেছিল যে, এ বছরের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানমঞ্চে প্রধানমন্ত্রী দেশের মাটিতে উৎপাদিত প্রথম করণা ভ্যাকসিনের কথা ঘোষণা করতে চলেছেন। গতকাল দেশের সংক্ষিপ্ত তম স্বাধীনতা দিবসের মঞ্চে যখন প্রধানমন্ত্রী এসেছিলেন, তখন দেশবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন, প্রধানমন্ত্রী করোনা ভ্যাকসিন এর ব্যাপারে কি ঘোষণা করতে চলেছেন।

যদিও দেশবাসীর সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। তবে দেশবাসীর মনে আশা জাগিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, এই মুহূর্তে ভারতে উৎপাদিত তিনটি করোনার ভ্যাকসিন বিভিন্ন পর্যায়ের পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাঝে অবস্থান করছে। বিজ্ঞানীদের সবুজ সংকেত মিললেই, এই সমস্ত ভাক্সিনগুলি ভারতবাসীর কাছে পৌঁছে দেবার দায়িত্ব নেবে কেন্দ্র সরকার।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেছিলেন যে, ভারতের ব্যাপক ভাবে করোনা প্রতিষেধক উৎপাদনের জন্য সমস্ত প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই নিয়ে ফেলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা উৎকণ্ঠিত ভারতবাসীকে যথেষ্টভাবে আস্বস্ত করেছে, এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু এর পরেও দেশবাসীর মনে থেকেই যাচ্ছে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন।

প্রথমত, ভারতে করোনা ভ্যাকসিন তৈরি হতে আর কতদিন সময় লাগবে? দ্বিতীয়ত, কবে ভারতবাসী করোনার ভ্যাকসিন হাতে পাবেন? – এই সমস্ত নানা প্রশ্ন যখন ঘোরাফেরা করছে সমগ্র ভারতবাসীর মনের অন্দরে, ঠিক সেই সময়েই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান গবেষক ডক্টর সৌম্য স্বামীনাথন এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, দেশের মাটিতে তৈরী করোনার ভ্যাকসিন হাতে পাবার জন্য ভারতবাসীকে এখনো অন্তত এক বছর অপেক্ষা করতে হবে। তার আগে ভারতের মাটিতে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হওয়ার তেমন কোন সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

গতকাল শনিবার ভারতে উৎপাদিত করোনা প্রতিষেধকের বিষয়ে চেন্নাইতে অনুষ্ঠিত একটি সাংবাদিক সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান গবেষক ডক্টর সৌম্য স্বামীনাথন বলেছেন, ”এই মুহূর্তে ভারত করোনার ভ্যাকসিন তৈরির একেবারে প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। কোনও ভ্যাকসিন চূড়ান্ত হতে আরও অন্তত এক বছর সময় লাগবে।”

ভারতের উৎপাদিত করোনার ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে গবেষক ডক্টর সৌম্য স্বামীনাথন আরো জানিয়েছেন যে, ইতিমধ্যে ভারতে উৎপাদিত কোন করোনা ভ্যাকসিনই তার সাফল্যের তথ্যবলী বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়নি। কিন্তু একমাত্র ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে সাফল্য লাভ করতে পারলেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনার ভ্যাকসিনের লাইসেন্স এর ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা করতে পারে। এই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেছেন যে, দেশে উৎপাদিত করোনা ভ্যাকসিনের উৎপাদন পদ্ধতি সম্পূর্ণ হতে এখনো অন্তত এক থেকে দেড় বছর সময় লেগে যাবে।

প্রসঙ্গত দেশের মাটিতে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত ভারত বায়োটেক এর কোভ্যাক্সিন কিন্তু ইতিমধ্যেই তার প্রথম পর্যায়ের ট্রায়াল সাফল্যের সঙ্গে প্রায় সম্পূর্ণ করে ফেলেছে। অন্যদিকে অক্সফোর্ড জাইদাস ক্যাডিলার ভাকসিন দুটিরও ইতিমধ্যেই মানবদেহে পরীক্ষা শুরু করতে চলেছে। এ প্রসঙ্গে ডক্টর সৌম্য স্বামীনাথন জানিয়েছেন, এই তিনটি বিশেষ ভ্যাকসিন নির্মাণ সংস্থা ছাড়াও সম্প্রতি ভারতে মোট আটটি সংস্থা করোনার ভ্যাকসিন তৈরির প্রচেষ্টায় নিয়োজিত আছে।

তবে এই প্রসঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন যে, এই ধরনের সংক্রামক রোগের টিকা আবিষ্কার করার মূলত, জন্য ৫ থেকে ৮ বছর সময় লেগে যায় কিন্তু বর্তমানের করোনা মহামারীর কথা চিন্তা করেই সমস্ত টিকা নির্মাণকারী সমস্ত সংস্থা করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের চেষ্টায় রাত-দিন এক করে দিচ্ছে। এক থেকে দেড় বছরের আগে এই টিকা আবিষ্কারের তেমন একটা সম্ভাবনা নেই,  এ কথাই তিনি জানিয়েছেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!