এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > ঐতিহাসিক পরিবর্তনের ১০ বছর আরও বলীয়ান মা-মাটি-মানুষের সরকার, কি জানাচ্ছেন অগ্নিকন্যা মমতা?

ঐতিহাসিক পরিবর্তনের ১০ বছর আরও বলীয়ান মা-মাটি-মানুষের সরকার, কি জানাচ্ছেন অগ্নিকন্যা মমতা?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  2011 সালে বামেদের সরিয়ে প্রথমবার রাজ্যের ক্ষমতায় এসেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তারপর শাসক দলকে আর পিছনের দিকে তাকাতে হয়নি। একের পর এক নির্বাচনে তৃণমূল খারাপ ফল করবে বলে বিরোধীরা দাবি করলেও, ভোটবাক্স খোলার পর বিরোধীদের কথা পুরো উল্টে গেছে। যেখানে বিগত দিনের নির্বাচনূর থেকেও আরও অভূতপূর্ব ফলাফল করতে দেখা গেছে তৃণমূল কংগ্রেসকে। পরবর্তীতে 2016 সালে আবার দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যের ক্ষমতা দখল করে তৃণমূল কংগ্রেস।

তবে এবার দশবছর পূর্ণ করার পর প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়া সহ তৃণমূল থেকে বিজেপিতে নাম লেখানো অনেক নেতার কারণে ঘাসফুল শিবির কতটা ভালো ফলাফল করতে পারবে এবং হ্যাটট্রিক করতে পারবে কিনা, তা নিয়ে নানা মহলে সংশয় তৈরি হয়েছিল। এমনকি দলের অনেকে এই ব্যাপারে তলায় তলায় আতঙ্কিত হতে শুরু করেছিলেন। তবে অবশেষে ভোটবাক্স খোলার পর 2011 এবং 2016 সালের থেকে অনেক বেশি আসন নিয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

213 টি আসনে জয়লাভ করে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত রাজ্যে অটুট রয়েছে ঘাসফুল শিবিরের দুর্গ। আর এত আসন নিয়ে তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর দশ বছর পূর্নের পূর্তি যেন খুশি এবং উচ্ছাসে পরিনত হয়েছে তৃনমূলের সর্বস্তরের নেতা কর্মীদের মধ্যে। জানা গেছে, তৃতীয়বার সরকার গঠন হওয়ার পরেই প্রথমবার 13 মের দিন কার্যত স্মৃতি এবং আবেগ হিসেবে দেখা দিয়েছে তৃণমূল পরিবারের মধ্যে।

যেখানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐতিহাসিক 13 মে হিসেবে তুলে ধরেছেন অনেকে। আর তৃনমূলের কাছে আরও দশ বছর পূর্তি বেশি আনন্দের কারন হয়েছে, যখন তৃতীয়বার দল আরও বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে। তবে দলের উপরতলা থেকে নিচুতলা প্রথম ক্ষমতায় আসা থেকে হ্যাটট্রিক করা, সকল কিছুর জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কৃতিত্বকে তুলে ধরছেন। পাশাপাশি উন্নয়নের মোড়কে যেভাবে বাংলা এগিয়ে যাচ্ছে, তাতে দল যে এখন যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী, তা তৃণমূল নেতার কথার মধ্যে দিয়েই পরিষ্কার।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

ইতিমধ্যেই 10 বছর পূর্তি উপলক্ষে নানা মহলের তরফ থেকে তৃণমূলকে শুভেচ্ছা বার্তা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি দলের নেতা-কর্মীরাও 10 বছর ধরে দল যেভাবে এগিয়ে গিয়েছে এবং তৃতীয় বারের জন্য দল যেভাবে ক্ষমতায় এসেছে, তার জন্য নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শুভেচ্ছা জানাতে শুরু করেছেন। এদিন এই প্রসঙ্গে বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য-সুরক্ষার দিকে বিশেষভাবে নজর দেওয়া হয়েছে।”

অন্যদিকে এই ব্যাপারে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন, “সাফল্যের মূল কারণ হল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রকল্পগুলো বাংলার মানুষকে স্পর্শ করেছে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়েও বাংলা জয়লাভ করবে।” বিশ্লেষকরা বলছেন, তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসা বা হ্যাটট্রিক করা তৃণমূলের পক্ষে খুব একটা সহজ ছিল না। যেভাবে বিজেপির সর্বস্তরের নেতা নেত্রীরা বাংলায় এসে পড়ে ছিলেন এবং ক্ষমতা দখলের ব্যাপারে আত্মপ্রত্যয়ী ছিলেন, তাতে তৃণমূল ব্যাপক আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসবে, এটা অনেকেই কল্পনা করতে পারেনি।

কিন্তু তৃতীয়বারের জন্য প্রথম এবং দ্বিতীয়বারের থেকেও অনেক বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে ঘাসফুল শিবির। আর এই পরিস্থিতিতে তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরে যখন 10 বছর পূর্তি হয়েছে, দলেনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের উন্নয়নের জন্যই যে দলের এই সাফল্য, তা স্পষ্ট হয়ে ফুটে উঠেছে তৃণমূল নেতাকর্মীদের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!