এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > অবশেষে পদ পেতে চলেছেন একাধিক প্রভাবশালী নেতা! কে কোন পদে তাই নিয়ে অবাধে চলছে বাজি ধরা!

অবশেষে পদ পেতে চলেছেন একাধিক প্রভাবশালী নেতা! কে কোন পদে তাই নিয়ে অবাধে চলছে বাজি ধরা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে বিভিন্ন জেলার সাংগঠনিক পদে বদল এনেছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব। আর তারপরেই রাজ্য থেকে জেলা কমিটি, ব্লক এবং শহর কমিটি ঠিক করে দেওয়া হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই রাজ্য থেকে ঠিক করে দেওয়া এই কমিটিতে কারা কারা জায়গা পাবেন, তা নিয়ে বিভিন্ন জেলায় তৃণমূলের অন্দরে বিস্তর গুঞ্জন ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যেই নানা জেলায় কারা কারা কমিটিতে জায়গা পাবেন, তা নিয়ে অনেক ক্ষেত্রে একে অপরকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বাজি ধরতেও ছাড়ছেন না তৃণমূলের নেতারা।

জানা গেছে, সমস্ত কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী 22 সেপ্টেম্বর মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে। 21 তারিখ এই নিয়ে চূড়ান্ত বৈঠক রয়েছে। তবে এই নতুন কমিটিতে কারা কারা জায়গা পাবেন এবং বিভিন্ন ব্লকে তৃণমূলের মুখ কারা হবেন, তা নিয়ে দলের অন্দরে শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

বস্তুত, রানীনগর, ভরতপুর টু এবং ফারাক্কা সহ আরও বেশ কয়েকটি ব্লক নিয়ে সবথেকে বেশি চর্চা শুরু হয়েছে। তৃণমূলের একাংশ দাবি করছে, বেশিরভাগ ব্লকেই পুরনো সভাপতিদের বহাল রাখা হচ্ছে। তবে জলঙ্গিতে অন্যতম অভিযুক্ত তহিরুদ্দিনকে এবার আর ব্লক সভাপতি পদে রাখা হবে না বলেই খবর।

একাংশের আশঙ্কা, যে সমস্ত ব্লকে বিতর্কিত নামগুলো উঠে আসছে, সেখানে তাদেরকে সরিয়ে দিয়ে নতুন মুখ আনলে দলের অন্দরে বিদ্রোহ সৃষ্টি হতে পারে। তাই এক্ষেত্রে কোন নেতাকে কোথায় দায়িত্ব দেওয়া হবে, তা নিঃসন্দেহে দেখার বিষয় রাজনৈতিক মহলের কাছে। কেননা তৃণমূলের পক্ষ থেকে বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করেই নতুন কমিটি গঠন করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে এই কমিটি গঠন করেও যদি শাসক দলকে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের শিকার হতে হয়, তাহলে অনেকটাই অস্বস্তিতে পড়বে ঘাসফুল শিবির বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, ডোমকল ব্লকে তৃণমূলের বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে বিলাসবহুল জীবনযাপন করার অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও জঙ্গিপুর এবং লালবাগ মহাকুমার বেশকিছু তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে মানুষের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। তাই সেখানে নতুন মুখ এনে শাসক দল সংগঠনকে চাঙ্গা করতে উদ্যোগী হবে। কিন্তু পুরনো মুখ বাদ দিয়ে যদি বিধানসভা নির্বাচনের আগে নতুন মুখ আনা হয়, তাহলে পুরোনো নেতারা ভোটবাক্সে বিদ্রোহী মনোভাব পোষণ করতে পারেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেদিক থেকে কোন ব্লকে কোন নেতা দায়িত্ব পাবেন, তা এখন প্রধান লক্ষণীয় বিষয় মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের কাছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল সভাপতি আবু তাহের খান বলেন, “22 তারিখে আমরা কমিটি ঘোষণা করার চেষ্টা করছি।” এখন কমিটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে তৃণমূল নেতৃত্ব কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে, কারা কারা নতুন মুখ হিসেবে উঠে আসে এবং কারা কারা বাদ যান, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!