এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এনআরএস কান্ডে উত্তাল রাজ্য, মুখ্যমন্ত্রীর সময় নেই সেখানে যাওয়ার – ক্ষোভ বাড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়‌

এনআরএস কান্ডে উত্তাল রাজ্য, মুখ্যমন্ত্রীর সময় নেই সেখানে যাওয়ার – ক্ষোভ বাড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়‌



এ যেন গোদের উপর বিষফোঁড়া। লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে দলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থান হওয়ায় ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে উষ্মা প্রকাশ করেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এই লোকসভার ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষ ঘটনার ঘটতে থাকায় এবং শাসক-বিরোধী সমস্ত রাজনৈতিক দলের কর্মীরাই নিহত হওয়ায় রাজ্য প্রশাসনের ওপর বর্তমানে প্রবল চাপ সৃষ্টি করতে শুরু করেছে বিজেপি।

রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পুরো ভেঙে পড়েছে বলে কেন্দ্রের কাছে অভিযোগও করেছে বঙ্গের বিজেপি নেতারা। আর এই পরিস্থিতিতে গতকাল কোলকাতার এনআরএস হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি এবং পরিবহ মুখোপাধ্যায়ের মতো চিকিৎসকের গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনা রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে প্রবল অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছে। বিজেপির অভিযোগ, এই গোটা ঘটনায় চিকিৎসকদের ওপর হামলার পেছনে শাসকদলই জড়িত।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে সেই সমস্ত দাবিকে অস্বীকার করা হয়েছে। শাসকদলের বক্তব্য, রাজ্য প্রশাসন সব সময় চিকিৎসকদের পাশে রয়েছে। বিরোধীরা মিথ্যা এই ঘটনাকে নিয়ে কুৎসা শুরু করেছে। তবে শাসক দলের পক্ষ থেকে এই ঘটনায় বিরোধীদের উদ্দেশ্যে তোপ দাগলেও এবার এনআরএসে একবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই চিকিৎসকদের দেখতে যাওয়ার না যাওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করতে শুরু করলেন অনেকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একাংশ বলছেন, রাজীব কুমারকে বাঁচানোর জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তড়িঘড়ি করে ছুটে গিয়ে ধর্নায় বসলেও এনআরএসে এত বড় ঘটনা ঘটে যাওয়া সত্ত্বেও তিনি এর সমাধান তো দূর অস্ত, সেই চিকিৎসকদের দেখতে যাওয়ার সময় পর্যন্ত পান না।

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এখন বিরোধীরাও তাদের হাতে নতুন অস্ত্র পেয়ে গিয়েছে। সব মিলিয়ে একদিকে রাজ্যের আইনশৃংখলার অবনতি এবং অন্যদিকে এনআরএস কান্ড – এই দুইয়ের জেরে বর্তমানে বিরোধীদের ষাড়াশি চাপে কিছুটা হলেও বেগতিক রাজ্য সরকার।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!