এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > জয় নয়, নোয়াপাড়ায় অন্য লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে তৃণমূল

জয় নয়, নোয়াপাড়ায় অন্য লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে তৃণমূল



গোষ্ঠীকোন্দলকে শেষ করে আসন্ন নোয়াপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনে বিজেপির ভোট যাতে না বাড়ে তারজন্য কোমর বেঁধে ভোটযুদ্ধে নেমে পড়ল শাসকদল।শীর্ষস্থানীয় নেতাদের দাবি,তাদের এইবারের প্রতিপক্ষ বিজেপি নয় বরং সিপিএম।বুধবার দলের নির্বাচনী কর্মীসভায় এমনটাই জানালেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

প্রসঙ্গত,আগামী বিধানসভা নির্বাচনিতে প্রার্থী হিসাবে প্রাক্তন বিধায়ক মঞ্জু বসুর নাম না থাকায় ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক সমালোচনার সুর তুঙ্গে।দলের অনেকের আশঙ্কা তার এই অবমাননার জন্য তিনি আবার গেরুয়া দলের পথ না বাছেন।তার উপর শিউলি,মোহনপুর প্রমুখ অঞ্চল থেকে উঠে আসছে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের নানান কাহিনী।এর সকল সমস্যার মাঝেই নোয়াপাড়ার তৃণমূলের কর্মীদের ৫০ হাজারেরও বেশি ভোটের লক্ষে বেঁধে দেয় রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী।তাই এদিন পলতার ৫ নম্বর স্কিম মাঠে দলীয় কর্মিসভায় বক্সীবাবু বলেন,”সবংয়ের চেয়েও ভাল ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে। আমাদের জিততে হবে ৫০ হাজারেরও বেশি ভোটে।”অনেকে মনে করছেন যে মুকুল রায়ের জন্যই সবংয়ে ভোট বেড়েছিল তৃণমূলের ফলে নোয়াপাড়া তো মুকুলের কাছের পাড়া ফলে এখানে যদি মুকুল ম্যাজিক কাজ করে তবে তো বিজেপির ভোট বাড়বেই আবার অঘটন ও ঘটতে পারে।কিন্তু সেই আশঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়ে এদিন জ্যোতিপ্রিয়বাবু জানান,”মুকুল রায় কোনও ফ্যাক্টর নন। আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বী কেউ থাকলে সেটা সিপিএম। বিজেপি ও কংগ্রেস তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে থাকবে।”

আবার অন্যদিকে উপনির্বাচনের সকল দায়িত্ব ন্যস্ত করা হয়েছে অর্জুন সিংহকে।তৃণমূলে থাকা কালীন এই অর্জুনের সঙ্গে মুকুলের ছিল এক দ্বন্দ্ব।তাই আসন্ন নির্বাচনিতে যাতে মুকুলের কোনো কৌশল দানা না বাঁধতে পারে তাই অর্জুনবাবু ভোটের ছক ইতিমধ্যেই কোষে ফেলেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!