এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বঞ্চনার অভিযোগে উত্তাল চা-বাগান, বৃহত্তর ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহেই

বঞ্চনার অভিযোগে উত্তাল চা-বাগান, বৃহত্তর ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহেই



গত বুধবারই উত্তরবঙ্গের মিনি সচিবালয় উত্তরকন্যায় চা শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবিদাওয়া ও শ্রমিকদের প্রাপ্য মজুরি নিয়ে এক ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে বসেছিলেন শ্রম দপ্তরের কমিশনার জাভেদ আখতার। সূত্রের খবর, সরকারের উদ্যোগে আয়োজিত এই বৈঠকে সিসিপিএ, টাই, টিপার মত মালিকপক্ষের সংগঠনের প্রতিনিধিদের পাশাপাশি শ্রমিক সংগঠনের তরফে তৃনমূল শ্রমিক সংগঠন, জয়েন্ট ফোরাম এবং বিটিডব্লিউএ-র প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন। এদিনের বৈঠকেই শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে জয়েন্ট ফোরাম সরকারের কাছে দ্রুত নূন্যতম মজুরি বাড়ানোর দাবি জানায়।

প্রিয় বন্ধু বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ – Priyo Bandhu Bengali

—————————————————————————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেখানে সরকারের তরফে শ্রম দপ্তরের কমিশনার স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, “এই ব্যাপারে আগামী 12 জুলাই কোলকাতায় একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে। তাই ঘোষিত ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেওয়া হোক।” জানা গেছে, জয়েন্ট ফোরাম কিছুতেই তাঁদের এই ধর্মঘট থেকে সরতে নারাজ। এ নিয়ে ফোরামের পক্ষে অলোক চক্রবর্তী, জিয়াউল আলমরা বলেন, “2015 র চুক্তি অনুযায়ী নুন্যতম মজুরি চালুর কথা থাকলেও অন্তবর্তীকালিন মজুরি বৃদ্ধি আমরা মানব না।” এমনকী 12 জুলাইয়ের বৈঠকে যদি মজুরি বৃদ্ধি না হয় তাহলে ফের যে তারা বড় ধর্মঘটের পথে যাবে সেব্যাপারে হুশিয়ারী দিয়েছে জয়েন্ট ফোরাম। তাই সব মিলিয়ে আগামী 12 জুলাইয়ের শ্রমিক-সরকার বৈঠকে যদি চিড়ে না ভেজে তবে ফের চা বাগান বন্ধের পথে পাহাড়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!