এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিরোধীদের ‘জোর করে’ মনোনয়ন দিতে দেওয়া হয় নি প্রমান করছে দেওয়াল লিখন

বিরোধীদের ‘জোর করে’ মনোনয়ন দিতে দেওয়া হয় নি প্রমান করছে দেওয়াল লিখন



নির্বাচনের প্রচার কার্য শুরু করে দেওয়ার পরে মনোনয়নপত্র পেশ করতে পারলেন না মহিষাদল ব্লকের জেলা পরিষদের সিপিএম প্রার্থী অপূর্ব জানা। নির্বাচনী প্রচার কার্যে এলাকার সাধারণ মানুষের কাছে ভোট দিয়ে তাঁকে জয়ী করার দাবি জানিয়ে দেওয়াল লিখন হয়ে গিয়েছিলো। সূত্রের অনুয়ারী জানা যাচ্ছে মহিষাদল ব্লকের বেশ কিছু জায়গায় সিপিএম গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতিতে প্রার্থী মনোনয়ন করলেও জেলা পরিষদের আসনে প্রার্থীর মনোনয়ন করতে পারেনি। প্রতিটি ক্ষেত্রেই দেওয়াল লিখনের কাজ হয়ে গিয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই নিয়ে রাজ্যের শাসক দল এবং সিপিএম দলের কর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়ে গিয়েছে। দেওয়াল লিখনের পরে মনোনয়নপত্র পেশ করতে অসমর্থ সিপিএমের অপূর্ব জানা বললেন, ”দেওয়াল যদি না লিখি বিরোধীরা বলবে সিপিএম প্রার্থী ঠিক করতে পারেনি। সিপিএম সব জায়গায় প্রার্থী দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল। কিন্তু শাসক দল প্রশাসনকে কাজে লাগিয়েছে। যাতে আর কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে না পারে। প্রথম দিন থেকেই সেই প্রয়াস করে আসছে। মানুষকে বোঝানো হবে যে প্রার্থী নিয়ে আমরা লড়াই করার জন্য প্রস্তুত ছিলাম। শাসক দল সন্ত্রাস করে মনোনয়ন করতে দেয়নি।” অন্যদিকে একরকম অভিযোগের সুরে মহিষাদল ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তিলক চক্রবর্তী বললেন, ‘নমিনেশনের পরেই আমরা দেওয়াল লিখন শুরু করি। সিপিএম মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি করার জন্য এই কাজ করেছে। তাছাড়া নিজেরাই জানে যে মনোনয়ন জমা দিলেও হারবে না দিলেও হারবে। তাই এই বিভ্রান্তি তৈরি করে বোঝাতে চাইছে যে তৃণমূল সন্ত্রাস তৈরি করে নমিনেশন জমা করতে দেয়নি। যদি এসইউসিআই মনোনয়ন জমা দিতে পারে তাহলে সিপিএম পারবে না কেন? আসলে মানুষ উন্নয়নের সঙ্গে আছে ওদের হার নিশ্চিত জেনে গিয়েছে। তাই নমিনেশন না করে দেওয়াল লিখে এই রকম ভাঁওতা দেখাছে মানুষকে।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!