এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > বাড়িতে না জেনেই রোজ ব্যবহার করছেন এগুলো? জানুন কিভাবে শরীরে ডেকে আনছেন নিশ্চিত ক্যান্সারকে?

বাড়িতে না জেনেই রোজ ব্যবহার করছেন এগুলো? জানুন কিভাবে শরীরে ডেকে আনছেন নিশ্চিত ক্যান্সারকে?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বর্তমানে ক্যান্সার একটি বহুশ্রুত রোগ। এখনকার প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই কোনো না কোনো মানুষ এই রোগে আক্রান্ত বলে কিছুদিন আগের সমীক্ষাতে দেখা গিয়েছিল। ক্যান্সারের অন্যতম কারণ হিসেবে অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রা বা স্ট্রেসকে দায়ী করা হলেও সম্প্রতি জানা গেছে আপনার বাড়ির নিত্য ব্যবহৃত জিনিস থেকেও হতে পারে ক্যানসার।

বস্তুত আমরা নিজেদের বাড়ি পরিষ্কার রাখতে এমন অনেক জিনিস ব্যবহার করি যাতে ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ থাকে। আর যা কিনা আমাদের দেহে ক্যান্সার ঘটাতে কার্যকরী বলেই মনে করা হয়। তবে নিজেদের অজান্তে কিভাবে নিজেদের জীবনে ডেকে আনছেন এই রাজরোগের সম্ভাবনা, জেনে দেখতে পারেন এখনই

বস্তুত, বর্তমানের ঘর পরিষ্কারের এমন আধুনিক জিনিসপত্র আবিষ্কার হয়নি যখন, তখন থেকেই ঘর পরিষ্কারের জন্য ব্লিচিং পাউডার ব্যবহার করার চল ছিল বলে মনে করা হয়। তবে জানা গেছে, ব্লিচিং পাউডারের ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ ত্বকের সংস্পর্শে এলে তা যেমন ক্ষতি করতে পারে, তেমনি যে সমস্ত মানুষদের শ্বাসকষ্ট আছে তাদের ক্ষেত্রেও এটি ক্ষতিকর।

এছাড়া জামা কাপড় থেকে দুর্গন্ধ দূর করতে অনেকেই আলমারিতে বা জামা কাপড় রাখার জায়গায় ন্যাপথলিন রেখে দেয়। তবে এর গন্ধ অনেক সময় মাথা ব্যথা বা শ্বাসকষ্টের কারণ হতে পারে পারে বলেই মনে করা হয়। অন্যদিকে ব্লিচিং পাউডারের মত ডিটারজেন্টও আপনার ত্বক থেকে শুরু করে শরীরের ক্ষতি করতে পারে বলে মনে করেন অনেকে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে ঘর সুগন্ধি করতে অনেকেই এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করেন। কিন্তু এয়ার ফ্রেশনারে ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থ ক্যান্সারের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে বলে মনে করা হয়। এছাড়া ফুসফুস এবং চোখের ক্ষতি করতে পারে এই এয়ার ফ্রেশনার।

সেই সঙ্গে কার্পেট ক্লিনারে থাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যামোনিয়াম হাইড্রোক্সাইড, যা আপনার চোখ এবং ফুসফুসের ক্ষতি করতে পারে। এছাড়া এতে এমন কিছু রাসায়নিক পদার্থ থাকে যা আপনার লিভার ও কিডনির ক্ষতি করার সঙ্গে সঙ্গে আপনাকে ক্যান্সারে আক্রান্ত করতে পারে বলেও মনে করা হয়।

এছাড়া বাসন ধোয়ার সাবান বা ডিশওয়াশারে লক্ষ্য করা যায় ক্লোরিন এর মত উপাদান। যা কেবল বড়দের জন্যই নয় শিশুদের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত ক্ষতিকর বলে মনে করা হয়। অন্যদিকে বেসিনে ময়লা জমে গেলে বা বেসিন বা নল থেকে দুর্গন্ধ বের হলে তা পরিষ্কার করার জন্য অনেকেই সালফিউরিক অ্যাসিড বা হাইড্রোক্লোরিক এসিডের ব্যবহার করে থাকেন।

কিন্তু এগুলি আপনার ত্বক, ফুসফুস, চোখ এগুলি ক্ষতি করার সঙ্গে সঙ্গে ক্যান্সারের মতো রোগেরও লক্ষণ হিসেবে মনে করা হয়। সেই সঙ্গে এর ক্ষতিকারক প্রভাব হিসাবে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে বলে মনে করেন অনেকে। তাই ভবিষ্যতে এই জিনিসগুলি আপনার বাড়িতে ব্যবহার করার ক্ষেত্রে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করে দেখতে পারেন বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!