এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > নির্বাচনে তৃণমূলের জয় লাভের পর বিশেষ টুইট কঙ্গনা রানাওয়াতের

নির্বাচনে তৃণমূলের জয় লাভের পর বিশেষ টুইট কঙ্গনা রানাওয়াতের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিধানসভা নির্বাচনে অপ্রত্যাশিত জয়লাভ করল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। লক্ষ্যের অনেক আগেই থমকে গেল বিজেপির বিজয় রথ। তৃণমূলের অপ্রত্যাশিত জয়লাভের পর এক টুইট করলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। অভিনেত্রী জানান, নির্বাচনের এই হার বিজেপির ব্যর্থতা নয়, এই হার হলো বাংলার মানুষের ব্যর্থতা। বাংলা খুব তাড়াতাড়ি আরেকটা কাশ্মীর হতে চলেছে।

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত জানিয়েছেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি হল বাংলাদেশী ও রোহিঙ্গারা। যা ট্রেন্ড দেখা যাচ্ছে, তাতে বাংলায় হিন্দুরা আজ সংখ্যাগরিষ্ঠ নেই। তথ্য জানিয়ে দিচ্ছে যে, বাংলার মুসলিমরা হলেন সারা ভারতের মধ্যে সবচেয়ে দরিদ্র ও বঞ্চিত। ভালোই হয়েছে আরও একটা কাশ্মীর তৈরি হতে চলেছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন যে, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির এই হার আসলে ভারতেরই হার। মানুষের জানা দরকার যে, এটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বা নরেন্দ্র মোদির বিষয় নয়। ভারত কেন বাংলায় হারলো? সেটাই জানা দরকার। এরপরই তিনি জানালেন যে, কাশ্মীরের হিন্দুদের মত অবস্থা হবে বাঙালি হিন্দুদের। আর কোথাও যাওয়ার জায়গা যখন থাকবে না, তখন নিজেকেই দোষটা নিতে হবে।

অন্যদিকে, বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলে জয়লাভকে ঐতিহাসিক বলে বর্ণনা বামপন্থী সিপিআইএমএল দলের। দলের পক্ষ থেকে জানানো হলো, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির পরাজয় দেশজুড়ে সংবিধান, গণতন্ত্র, যুক্তরাষ্ট্রের কাঠামোকে বাঁচানোর লড়াই ও ভারতীয় চেতনাকে প্রেরণা ও শক্তি জোগাবে। বিজেপির ক্ষমতা দখলের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে বাংলার গণ রায়। গণহত্যা করে, ভয় দেখিয়ে, দলবদল করিয়ে ক্ষমতা দখলের চক্রান্ত রুখে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এই রায় সংকীর্ণতা ও বিদ্বেষের রাজনীতির বিরুদ্ধে বাংলার উদার ঐতিহ্য ও সম্প্রীতির বলিষ্ঠ জবাব।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!