এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > নিজের-গড় বাঁচাতেই কার্যত হিমশিম দিলীপ ঘোষ! একযোগে দল ছেড়ে তৃণমূলে ৭০ প্রভাশালী নেতানেত্রী!

নিজের-গড় বাঁচাতেই কার্যত হিমশিম দিলীপ ঘোষ! একযোগে দল ছেড়ে তৃণমূলে ৭০ প্রভাশালী নেতানেত্রী!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট আবারও দলবদলের ধাক্কা গেরুয়া শিবিরে। এবার রাজ্য বিজেপি সভাপতি তথা বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষের এলাকায় অর্থাৎ মেদিনীপুরে। বাংলার রাজনৈতিক শিবিরগুলিতে এখন চলছে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে নামার প্রস্তুতি। প্রতিটি রাজনৈতিক দল বর্তমানে তাঁদের ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যে। বলা যেতে পারে, এই নির্বাচন এখন একটি যুদ্ধের রূপ নিয়েছে। বাংলার মসনদ দখল করতে একই সাথে চলছে একে অপরকে টেক্কা দেওয়ার লড়াই। এবং এই টেক্কা দেওয়ার লড়াইতে এবার গেরুয়া শিবিরকে পিছিয়ে দিল তৃণমূল।

সম্প্রতি পশ্চিম মেদিনীপুর বিজেপির স্পোর্টস সেলের জেলা সম্পাদক সহ আরো 70 জন বিজেপি কর্মী যোগ দিলেন তৃণমূলে। শুক্রবার খড়গপুর ইন্দা পেট্রোল পাম্পের কাছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে একটি সভার আয়োজন করা হয়। এবং এই সভাতেই বিজেপি শিবিরের অন্তত 70 জন কর্মী তৃণমূলে যোগ দিলেন। অন্যদিকে লোকসভা নির্বাচনের পর যে ছবি দেখা যাচ্ছিল বাংলায়, বিধানসভা নির্বাচনের আগে সেই ছবি পুরোপুরি পালটে যাচ্ছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

পাশাপাশি বিজেপি থেকে তৃণমূলে দলব্বদলের ফলে পূর্ব মেদিনীপুরে ঘাসফুল শিবিরের শক্তি বৃদ্ধি হলো বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। যদিও ব্যাপারটিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ গেরুয়া শিবির। উল্লেখ্য, গত মাসের শেষেও খড়গপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপি শ্রমিক সংগঠনের অন্তত 50 জন নেতাকর্মী যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। তৃণমূল নেত্রী জানিয়েছিলেন, বিজেপির প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেই তৃণমূলে পদার্পণ বিক্ষুব্ধদের।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পাল্টা বিজেপি সভাপতি দাবি করেন, প্রলোভন দেখিয়ে শাসক দল বিজেপি কর্মীদের ধরে নিয়ে যাচ্ছেন। তবে শুধু মেদিনীপুরেই নয়, গত কয়েক মাস যাবত উত্তর 24 পরগনা, দক্ষিণ 24 পরগনা, বাঁকুড়া, মেদিনীপুর সহ বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার বিজেপি কর্মী যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে বলে দাবী করা হচ্ছে শাসক শিবিরের পক্ষ থেকে। তবে দলত্যাগের পাশাপাশি এদিন দলে যোগ দেবার খবরও পাওয়া গেল। এবার বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রাক্তন বাম বিধায়ক স্বদেশ নায়েক। রাজ্য বিজেপির দপ্তরে এসে তিনি দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে, তিনি খুব সম্ভবত একুশের বিধানসভা নির্বাচনে রামনগর থেকে বিজেপির হয়ে দাঁড়াতে চলেছেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দল বদলের ফলে তৃণমূল বা বিজেপি কার ওপর কি প্রভাব পড়েছে, তা স্পষ্ট হবে বিধানসভা নির্বাচনে। অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, যেভাবে বিজেপি থেকে দলত্যাগ চলছে তা কিন্তু মোটেই আশাব্যঞ্জক নয় বিজেপির পক্ষে। তবে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই যে দুই দলের পক্ষেই অত্যন্ত কঠিন হতে চলেছে সে ব্যাপারে স্পষ্ট ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। আপাতত বিধানসভা নির্বাচনে মসনদ দখল কে করতে চলেছে সেদিকেই এখন নজর থাকছে বাংলার জনগণের।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!