এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > নতুন দ্বায়িত্ব পেয়েই অবৈধ বালি তোলা আটকাতে কড়া পদক্ষেপ রাজ্যের অন্যতম শীর্ষমন্ত্রীর

নতুন দ্বায়িত্ব পেয়েই অবৈধ বালি তোলা আটকাতে কড়া পদক্ষেপ রাজ্যের অন্যতম শীর্ষমন্ত্রীর



ক্ষমতায় আসার পর থেকে রাজ্যে অবৈধ বালি খাদান কারবার রুখতে প্রশাসনকে কড়া হওয়ার বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারে দলনেত্রীর দেখানো পথেই সোমবার ঘাটাল মহকুমার বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে শহলের টাউন হলের এক প্রশাসনিক বৈঠকে সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র বলেন, “নদী থেকে চালান কেটে বালি তোলা হলে সরকারের নিজস্ব এবং নদীর নাব্যতা বাড়ে ঠিকই, কিন্তু তাতে বাঁধেল ক্ষতি হয়। তাই সেচ দপ্তরের আধিকারিক ছাড়া অন্য কেউ অবৈধভাবে বালি তুললে গাড়ি আটকে প্রশাসনকে খবর দিন।” গত বার বন্যায় ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি হয়েছিল ঘাটালের।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন এ প্রসঙ্গে সেচমন্ত্রী বলেন, “বন্যা মোচাবিলার জন্য সম্পূর্নভাবে তৈরি প্রশাসন। ডিভিসিকে বলেছি, জল ছাড়ার দুদিন আগে যেন রাজ্যকে জানানো হয়।”  সূত্রের খবর, এদিনের এই বৈঠকে জল নিকাশি নিয়ে সেচমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করেন ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী সহকারি সভাপতি দিলীপ মাঝি, দাসপুর 2 এর বিদায়ী সভাপতি অরুনকুমার মুখোপাধ্যায়, বিদায়ী কর্মাধক্ষ্য আশিষ হুদাইত। এই অনুষ্টানে মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলার জেলাশাসক, প্রশাসনিক আধিকারিক ও সাংসদ ও বিধায়কেরা। সব মিলিয়ে সেচ দপ্তরের দ্বায়িত্ব নেওয়ার পরই অবৈধ বালি খাদান ও বন্যা আটকাতে কড়া পদক্ষেপ সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!