এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > যতই অভিযোগ থাকুক “দক্ষ” সংগঠকদের পদ থেকে সরানো হবে না তৃণমূলে? নির্বাচনের আগে নতুন ইঙ্গিত!

যতই অভিযোগ থাকুক “দক্ষ” সংগঠকদের পদ থেকে সরানো হবে না তৃণমূলে? নির্বাচনের আগে নতুন ইঙ্গিত!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –ইতিমধ্যে বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে তৃণমূল একাধিক জেলায় ব্যাপক সাংগঠনিক রদবদল করেছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তৃণমূলের এই উদ্যোগেই পরিষ্কার হয়ে গেছে যে, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তারা তরুণ এবং স্বচ্ছ মুখকে সামনে এনে বিজেপিকে কুপোকাত করতে চায়। অর্থাৎ যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তাদেরকে যে তৃণমূল নেতৃত্বস্থানে আনতে চায় না, তা তাদের এই উদ্যোগেই পরিষ্কার বলে মনে করছে একাংশ।

তবে বিশেষজ্ঞরা এই ব্যাপারে যে কথাই বলুন না কেন, মুর্শিদাবাদ জেলায় তৃণমূলের নতুন সাংগঠনিক চিত্র দেখার পর অনেকেই বলছেন, নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকতেই পারে। কিন্তু দক্ষ সংগঠকের বিরুদ্ধে যত অভিযোগই থাকুক না কেন, তাকে কোনোভাবেই সরানো হবে না। অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে একদিকে যেমন স্বচ্ছ মুখদেরসামনে আনতে চাইছে, ঠিক তেমনই এর পাশাপাশি যারা দক্ষ সংগঠক, তাদের ওপর ভিত্তি করে যে আগামী নির্বাচনে তারা লড়বে, তা কার্যত পরিষ্কার।

অর্থাৎ দক্ষ সংগঠকদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগই থাকুক না কেন, দল যে এখন সেদিকে বেশি নজর দেবে না, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত ঘাসফুল শিবিরের একাংশ। সূত্রের খবর, নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর মঙ্গলবার মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবু তাহের বহরমপুরের চেয়ারম্যান এবং কো-অর্ডিনেটরদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। যেখানে কোন কোন ব্লকের নেতা পরিবর্তন হবে, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অর্থাৎ আগামী দিনে কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি মুর্শিদাবাদ জেলা থেকে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে ভালো যে করতে হবে এবং তার কারণে এখন থেকেই যে মানুষের সঙ্গে বেশি করে মিশে যেতে হবে, তার ব্যাপারে এদিন বার্তা দেওয়া হয়েছে। তবে নতুন করে দায়িত্ব বন্টন করার পর এবার জেলাকে সাজাতে ব্লকগুলোতে ব্যাপক পরিবর্তন আনবে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে কার পদ যাবে এবং কার পদ থাকবে, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। আর এখানেই তৃণমূলের অনেকে বলছেন, জেলা পর্যবেক্ষকের পদ অবলুপ্তি হওয়ার পর মুর্শিদাবাদের রাজনীতিতে নতুন করে সমীকরণ তৈরি হয়েছে। কয়েকটি ব্লকের সভাপতিকে সরানো নিয়ে ইতিমধ্যেই অনেকে দাবি করতে শুরু করেছেন।

তাই তার ভিত্তিতে বেশকিছু রদবদল হতে পারে। তবে যারা দক্ষ সংগঠক, তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলেও যে সরানো হবে না, তা কার্যত পরিষ্কার জেলারই এক তৃণমূল নেতার কথায়। এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবু তাহের বলেন, “দলকে আরও বেশি মজবুত করতে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া দরকার, তার সবটাই হবে। সবাইকে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে। সমস্ত ব্লকেই আমরা বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কর্মসূচি নিয়েছি। দলের পক্ষ থেকে লকডাউনের সময় থেকে এখনও পর্যন্ত আমরা 98 টি রক্তদান শিবির করেছি। এত কর্মসূচি আর অন্য কোথাও নেওয়া হয়েছে কিনা, আমার জানা নেই।” সব মিলিয়ে এবার সংগঠনকে চাঙ্গা করতে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব ব্লকগুলোতে কতটা পরিবর্তন আনে এবং তার ভিত্তিতে সংগঠনকে কতটা শক্তিশালী করা সম্ভব হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!