এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নারদ মামলার অভিযুক্ত তৃণমূল বিধায়ক এবার বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে

নারদ মামলার অভিযুক্ত তৃণমূল বিধায়ক এবার বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্টনারদ মামলা থেকে সবে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নিয়ে হাসপাতালে কদিন কাটিয়ে বাইরে এসেছেন মদন মিত্র। যদিও তিনি শারীরিকভাবে যথেষ্ট দুর্বল বলে দাবী চিকিৎসকদের। কিন্তু হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর আবার স্বমহিমায় তিনি। বেশ কয়েকদিন যাবৎ কামারহাটির বিধায়ক মন্দিরে পুজো দেওয়া থেকে শুরু করে একের পর এক ফেসবুকে লাইভ, পাশাপাশি এলাকা জুড়ে করোনা পরিস্থিতির জরিপ করে চলছে ত্রাণের কাজ, সেখানেও দেখা যাচ্ছে মদন মিত্রকে। আর এবার স্বভাবসিদ্ধ রাজনৈতিক ভঙ্গিতে মদন মিত্র আক্রমণ করলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। রীতিমতো শুভেন্দুর বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনেছেন মদন মিত্র।

যা নিয়ে ইতিমধ্যে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। মদন মিত্র এদিন তীব্র কটাক্ষ সহযোগে বলেন, শুভেন্দু যেভাবে ন্যায়ের কথা বলে চলেছে তা ওর মুখে মানায় না। বরং শুভেন্দু পরিচালিত যেসব co-operative আছে, সেগুলিকে ভালোভাবে খতিয়ে দেখলে সেখান থেকেই অনেক তথ্য বেরোবে। পাশাপাশি কামারহাটির বিধায়ক রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিয়ে শুভেন্দুকে বলেছেন, একটু অপেক্ষা করলেই শুরু হবে এরপর কো-অপারেটিভ এবং এমপির খেলা। পাশাপাশি মদন মিত্র প্রশ্ন তুলেছেন, হলদিয়া ছেড়ে জাপানি কোম্পানিগুলি কেন পালিয়ে গেল তা নিয়ে। আর এর পেছনে নাম না করেও তিনি শুভেন্দুকেই দায়ী করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একইসাথে শুভেন্দুর সাথে বিধানসভায় বোঝাপড়া করবেন তিনি বলে হুংকার দিয়েছেন। পাশাপাশি মদন মিত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও ছাড়েননি। শুভেন্দুর পর নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ এনেছেন মদন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে বলেন, ভোট-পরবর্তী সন্ত্রাসের খতিয়ান দেখতে কেন্দ্রের প্রতিনিধিদল আসতে পারে, কিন্তু করোনা মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন প্রতিষেধক চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখেন তখন তার কোন উত্তর দেওয়া হয়না। এর পরেই তিনি শীতলকুচির ঘটনার উল্লেখ করেন।

একই সাথে প্রধানমন্ত্রীকে একের পর এক কটাক্ষ করে চলেন এবং তৃণমূলের আগামী দিনের টার্গেট নিয়েও ইঙ্গিতবহ বার্তা রাখেন এদিন মদন মিত্র। এর সাথেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য ভূয়সী প্রশংসা শোনা গিয়েছে আজকে মদন মিত্রের গলায়। সবমিলিয়ে বোঝাই যাচ্ছে মদন মিত্র আবারো নিজের পুরনো ফর্মে ফিরে এসেছেন। তবে মদন মিত্রে একগুচ্ছ অভিযোগ এবং হুঁশিয়ারির পরিপ্রেক্ষিতে শুভেন্দু অধিকারীর কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে এই বাক্যবাণের রেশ যে আরও বহুদূর গড়াবে, তা এক বাক্যে মেনে নিচ্ছেন রাজনৈতিক মহলের অনেকেই।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!