এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > নন্দীগ্রামের তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু, নতুন করে অশান্তির আশংকা, চাঞ্চল্য রাজনৈতিক মহলেও

নন্দীগ্রামের তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু, নতুন করে অশান্তির আশংকা, চাঞ্চল্য রাজনৈতিক মহলেও



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – এবারের নির্বাচনে নন্দীগ্রাম প্রথম থেকেই আলোচনার শীর্ষে ছিল সঙ্গত কারণেই। নন্দীগ্রামে প্রথমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে লড়াইয়ে নেমেছেন এবং তাঁর বিপরীতে এই প্রথমবার গেরুয়া শিবিরের অন্যতম নেতা শুভেন্দু অধিকারী। যথারীতি হাইভোল্টেজ এই কেন্দ্র ঘিরে প্রথম থেকেই ছিল উত্তেজনা। এবং ভোট মিটলেও সেই উত্তেজনায় যে এতটুকু ভাঁটা পড়েনি তা বলাই যায়। পাশাপাশি নন্দীগ্রামে ভোটের আগে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ মাত্রাছাড়া হারে বেড়ে উঠেছিল বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

আর সেই সংঘর্ষে জখম হয়েছিলেন তৃণমূলের কর্মী রবীন মান্না। গত এক সপ্তাহ এসএসকেএম হাসপাতালে লড়াই চালানোর পর শুক্রবার ভোরে তিনি মারা গেলেন। সূত্রের খবর, গত 27 শে মার্চ রবীন মান্নাসহ তিনজন তৃণমূল কর্মীর ওপর বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তৃণমূল কর্মী রবীন মান্নাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিচ্ছিলেন। কিন্তু শেষরক্ষা আর হলোনা।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী এজেন্ট শেখ সুফিয়ান জানিয়েছেন, কলকাতা থেকে মৃতদেহ আসার পর নন্দীগ্রাম থানার সামনে তৃণমূল নেতা কর্মীরা অবস্থান বিক্ষোভে বসবেন দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে। সূত্রের খবর, তৃণমূলের জেলা সভাপতি সৌমেন মহাপাত্র এসএসকেএম হাসপাতালে যাচ্ছেন মৃত তৃণমূল কর্মী রবীন মান্নার মরদেহ আনতে। গত 26 শে মার্চ বয়াল 2 নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় তিনজন তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে হামলা চালায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। সে সময় থেকেই শেখ সুফিয়ান অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে আসছেন।

কিন্তু বারবার পুলিশকে অভিযোগ জানালেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ হয়নি বলেই তৃনমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। সব মিলিয়ে আবারও একটি রাজনৈতিক মৃত্যু নন্দীগ্রামে নির্বাচনী আবহে। নন্দীগ্রামে নির্বাচন মিটলেও ফলাফল বেরোনো নিয়ে ইতিমধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে। তারমধ্যে এই মৃত্যু নতুন কোনো অশান্তি তৈরি করবে কিনা সেখানে সেদিকে থাকবে ওয়াকিবহাল মহলের কড়া নজর। পাশাপাশি তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু ঘিরে দুই শিবিরের যে ব্যাপক চাপানউতোর শুরু হতে চলেছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা।

 

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!