এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতার অভিযোগ খারিজ কমিশনের, কটাক্ষ বিজেপির!

নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতার অভিযোগ খারিজ কমিশনের, কটাক্ষ বিজেপির!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নন্দীগ্রামের বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রীতিমতো ধুন্ধুমার হয়ে উঠেছিল পরিস্থিতি। সূর্য যখন মধ্যগগনে, তখন বাইরে বেরিয়ে ছাপ্পা ভোট করার অভিযোগ তুলেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে বিজেপির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই এর পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনের কাছে একটি চিঠি লিখতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

অবশেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই চিঠির জবাব দিল নির্বাচন কমিশন। যেখানে নন্দীগ্রামের ভোট প্রক্রিয়ায় কোনো রকম কারচুপি হয়নি বলে জানিয়ে দেওয়া হল কমিশনের পক্ষ থেকে। স্বাভাবিক ভাবেই নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে অভিযোগ করেছিলেন, তাকে কমিশনের পক্ষ থেকে খারিজ করে দেওয়ায় এখন রীতিমত ময়দানে নেমে পড়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ সর্বতোভাবে খারিজ হয়ে যাওয়ায় পাল্টা তৃণমূল নেত্রীকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। যার ফলে একদিকে কমিশন এবং একদিকে বিজেপির চাপে এখন রীতিমত ব্যাকফুটে পড়ে গেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্রের খবর, আজ কমিশনের পক্ষ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা সেই অভিযোগপত্রের জবাব দেওয়া হয়। যেখানে নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দেয়, নন্দীগ্রামের ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়ায় কোনো কারচুপি হয়নি।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি চিঠিতে সিসি ক্যামেরার ফুটেজের কথাও উল্লেখ করেছে নির্বাচন কমিশন। আর এর পরেই এই ব্যাপারে বিজেপির পক্ষ থেকে তৃণমূল নেত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করা হয়। এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেন, “নির্বাচন কমিশন অভিযোগ খারিজ করার আগে মানুষই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন। বাংলার মানুষের কাছে পরিষ্কার, নন্দীগ্রামে অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে। মানুষ তাদের মত প্রকাশের অধিকার ফিরে পেয়েছে।”

পর্যবেক্ষকদের মতে, নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে যে জয়লাভ করবে, তার দল রাজ্যের ক্ষমতা দখল করবে, এটা সকলের কাছে পরিষ্কার। সেদিক থেকে দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের নির্বাচন কেমন হয়, তার দিকে নজর ছিল সকলের। প্রথম থেকে তেমন উত্তেজনা না থাকলেও, ভোট শেষের দিকে ময়দানে বের হতে দেখা যায় নন্দীগ্রামে তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। যেখানে বাইরে বেরিয়ে বয়ালের একটি বুথে গিয়ে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি।

এমনকি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও নির্বাচন কমিশনের কাছে একটি চিঠি লিখতে দেখা গিয়েছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু এবার সরাসরি নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থীর অভিযোগ খণ্ডন করে রীতিমত তৃণমূল কংগ্রেস এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চাপে ফেলে দিল নির্বাচন কমিশনার। যার সুযোগ নিয়ে এবার পাল্টা তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরব হতে শুরু করল ভারতীয় জনতা পার্টি। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!