এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > আবহাওয়া > নাছোড়বান্দা বৃষ্টি ক্রমাগত উদ্বেগ বাড়াচ্ছে রাজ্যবাসীর, চিন্তায় রাজ্য সরকার

নাছোড়বান্দা বৃষ্টি ক্রমাগত উদ্বেগ বাড়াচ্ছে রাজ্যবাসীর, চিন্তায় রাজ্য সরকার



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সপ্তাহের শুরু থেকে টানা বৃষ্টি রাজ্যের পরিস্থিতি ক্রমাগত উদ্বেগজনক করে তুলেছে। কিছুদিন আগেই ইয়াসের ধাক্কায় সাধারণের জীবনযাত্রা বিপর্যস্ত হয়ে উঠেছিল। আর তারপর থেকেই শুরু হয়েছে অঝোর ধারায় বৃষ্টি। এক সপ্তাহ টানা বৃষ্টির পর এখনো রোদের মুখ দেখা যায়নি বরং আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামীকাল থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আবারো ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। অন্যদিকে পাহাড়েও শুরু হয়ে গেছে বৃষ্টি। যার ফলে ধ্বসের আশঙ্কা বাড়ছে। গতকাল সকালের দিকে দক্ষিণবঙ্গে হালকা বৃষ্টি হলেও সন্ধ্যার পর থেকে নামে তুমুল বৃষ্টি। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানা যাচ্ছে, বাতাসে এই মুহূর্তে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ সর্বোচ্চ প্রায় 97%।

অন্যদিকে গতকাল কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল 30.4 ডিগ্রি সেলসিয়াস। সকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল 24.9 ডিগ্রী সেলসিয়াস। গত 24 ঘন্টায় শহরজুড়ে বৃষ্টি হচ্ছে 13.8 মিলিমিটার। প্রসঙ্গত, এই অতিবৃষ্টির পেছনে দক্ষিণবঙ্গের ওপর থাকা শক্তিশালী নিম্নচাপের অনুমান করা হচ্ছে। প্রতিবছর বর্ষায় এতটা বৃষ্টির দাপট থাকেনা। কিন্তু এবার শুরু থেকেই রাজ্যে অতি সক্রিয় বর্ষা। আর এর কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে উত্তর-পশ্চিম ভারত থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের উপর দিয়ে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে একটি শক্তিশালী নিম্নচাপ অক্ষরেখা। যেটি মৌসুমী বায়ুর সঙ্গে আসা সমস্ত জলীয়বাষ্পকে নিজের দিকে টেনে নিয়ে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে প্রবল বৃষ্টি নামাচ্ছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বাদ নেই উত্তরবঙ্গও। সেখানেও লাগাতার বৃষ্টি হয়ে চলেছে। কিন্তু আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে, নিম্নচাপ অক্ষরেখার জেরে আগামী সাতদিন প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকবে রাজ্যে এবং বৃষ্টির আধিক্য বাড়বে। খুব স্বাভাবিকভাবেই এই সংবাদ সাধারণ মানুষকে আরও আশঙ্কিত করেছে। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদীয়াতে। বুধবার বজ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ 24 পরগনা, পূর্ব-পশ্চিম মেদিনীপুরে।

কলকাতায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহারে আগামীকাল বৃষ্টি হতে পারে এবং বৃহস্পতিবার থেকে দার্জিলিং, কালিম্পং এবং আলিপুরদুয়ার বৃষ্টির তোড়ে ভেসে যাবে বলে আগাম জানিয়ে দিল আবহাওয়া দপ্তর। সব মিলিয়ে এই মুহূর্তে রাজ্যবাসী এই অতিবৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেননা। পাশাপাশি উদ্বেগ বেড়েছে বিভিন্ন জলাধারে জল বেড়ে যাওয়ায়। রাজ্যে বানভাসি এলাকার সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। পরিস্থিতি সামলাতে কি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে সেদিকে নজর থাকছে।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!