এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মূল টার্গেট বাংলা, প্রতিষ্ঠা দিবসে বুঝিয়ে দিলেন মোদী!

মূল টার্গেট বাংলা, প্রতিষ্ঠা দিবসে বুঝিয়ে দিলেন মোদী!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পশ্চিমবঙ্গের তৃতীয় দফায় নির্বাচন চলছে আজ। আর আজ বিজেপি প্রতিষ্ঠা দিবস। আর সেই প্রতিষ্ঠা দিবসের দিনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গলায় উঠে আসল পশ্চিমবঙ্গের প্রসঙ্গ। যেখানে নিজের বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে দলের সাফল্য ব্যাখ্যা করার পাশাপাশি তিনি বুঝিয়ে দিলেন, আগামী দিনে তাদের প্রধান টার্গেট পশ্চিমবঙ্গ। বলা বাহুল্য, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতা দখল করতে এবার রীতিমত মরিয়া ভারতীয় জনতা পার্টি। একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে একাধিক জায়গায় সভা-সমিতিতে অংশ নিচ্ছেন।

কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থেকে শুরু করে একাধিক মন্ত্রী সহ হেভিওয়েট নেতা নেত্রীরা পশ্চিমবাংলায় পড়ে রয়েছেন। সরব হচ্ছেন তৃণমূল সরকারের নানা নীতির বিরুদ্ধে। আর এই পরিস্থিতিতে দুই দফার নির্বাচন শেষে বিজেপি 50 টি আসন দখল করবে বলে দাবি করছেন ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা নেত্রীরা।

এমনকি রাজ্যের 200 টি আসন দখল করে বিজেপি ক্ষমতায় আসবে বলে দাবি করতে দেখা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় নেতাদের‌। আর এই পরিস্থিতিতে পশ্চিমবঙ্গের কথা দলের প্রতিষ্ঠা দিবসের দিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর গলায় উঠে আসায় বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে বাংলা বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, আজ দলের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যেখানে কেরল, পশ্চিমবঙ্গের মত রাজ্যে তাদের কর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে বলে অভিযোগ করতে দেখা যায় তাকে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এইসব রাজ্যে আমাদের কর্মীদের হুমকি দেওয়া হয়। তাদের পরিবারের ওপর হামলা হয়। কিন্তু তবুও অটল থাকাই আমাদের কর্মীদের বৈশিষ্ট্য।”

অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্যের মধ্য দিয়ে পরিষ্কার যে, পশ্চিমবঙ্গ এবং কেরলের ক্ষমতা দখল করতে এবার বিজেপি যথেষ্ট পরিমাণে উদ্যত। এতদিন মাঠে-ময়দানে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দেখা গেছে। কিন্তু এবার দলের প্রতিষ্ঠা দিবসের দিন সেই বাংলার কথা উঠে আসায় বাংলা নিয়ে যে বিজেপি নেতৃত্ব সত্যিই যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

পর্যবেক্ষকদের মতে, বিজেপি চেষ্টা করছে, রাজ্যের ক্ষমতা দখল করার। দুই দফার নির্বাচন শেষে বিজেপি কার্যত আত্মপ্রত্যয়ী, প্রথম দুই দফার নির্বাচনে তারা ভালো কল করবে। আর এই পরিস্থিতিতে দলের প্রতিষ্ঠা দিবসের দিন প্রধানমন্ত্রীর গলায় বাংলার কথা নিঃসন্দেহে গুঞ্জনের পরিবেশ তৈরি করেছে গোটা রাজ্য জুড়ে।

তৃতীয় দফার নির্বাচনের দিন প্রধানমন্ত্রী যখন বাংলার কথা তুললেন, তখন বিজেপির কিচেন ক্যাবিনেট বাংলা দখল করতে যে সত্যিই ঝাঁপিয়ে পড়েছে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সব মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বাংলা দখলের অভিলাষ কতটা বাস্তব হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!