এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুকুল আছেন মমতার মঞ্চেই, বিজেপিতে থেকেই ২১ জুলাই দেখতে হচ্ছে এই নেতাদের, মমতার বার্তায় নজর!

মুকুল আছেন মমতার মঞ্চেই, বিজেপিতে থেকেই ২১ জুলাই দেখতে হচ্ছে এই নেতাদের, মমতার বার্তায় নজর!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট-  তৃণমূলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য তিনি। দীর্ঘদিন 21 জুলাইয়ে দলের গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচিতে প্রধান ভূমিকায় ছিলেন তিনি। কিন্তু একসময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সতীর্থ মুকুল রায় গত 2017 সালে যোগ দিয়েছিলেন ভারতীয় জনতা পার্টিতে। তারপর 21 জুলাই তৃণমূলের শহীদ দিবস নিয়ে মাঝেমধ্যেই কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছে তাকে। তবে বর্তমানে বিধানসভা নির্বাচনের পর তৃণমূল বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসার পর আবার তৃণমূলে ফিরে এসেছেন মুকুল রায়। এদিকে করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার ভার্চুয়ালি তৃণমূলের শহীদ দিবসের অনুষ্ঠান হয়েছে।

কিন্তু সেই অনুষ্ঠানে কিছুদিন আগেই বিজেপি থেকে তৃণমূলে আসা মুকুল রায়কে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথেই এক মঞ্চে উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে‌। সেদিক থেকে কিছুদিন আগেই দলে যোগদান করা মুকুল রায়কে যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছেন, তা শহীদ দিবসের মঞ্চে তার উপস্থিতিতে কার্যত প্রমাণিত। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে এত গুরুত্ব দিলেও এখনও পর্যন্ত দোলাচলে থাকা বিজেপির রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে সব্যসাচী দত্তকে তৃণমূল কংগ্রেস গ্রহণ করার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেনি। যার জেরে বিজেপিতে যাওয়া একসময়কার তৃণমূল নেতাদের গ্রহণ করার ক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল কংগ্রেসের সিদ্ধান্ত নিয়ে কার্যত তৈরি হয়েছে জল্পনা।

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিজেপির ব্যাপক ভরাডুবি হওয়ার পর সব্যসাচী দত্ত থেকে শুরু করে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত মুখে কিছু না বললেও রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিভিন্ন ফেসবুক পোস্ট থেকে শুরু করে তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের বাড়িতে গিয়ে সাক্ষাৎ রীতিমতো জল্পনা বাড়িয়ে দিয়েছে। যার ফলে তিনি খুব তাড়াতাড়ি তৃণমূল কংগ্রেসে ফেরার সুযোগ পেলে ঘাসফুল শিবিরে যোগদান করবেন বলেই মনে করা হচ্ছে। একইভাবে বিজেপিতে থাকলেও, সেভাবে সক্রিয় কোনো কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকতে দেখা যাচ্ছে না মুকুল রায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সব্যসাচী দত্তকে।

তবে তারা একসময় যে মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন, সেই মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করার পর তার হাত ধরে আবার বিজেপিতে থাকা নেতারা তৃণমূলে ফিরে যেতে পারবেন বলেই মনে করা হয়েছিল। সেদিক থেকে মুকুল রায় কিছুদিন আগে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠলেও, অন্যান্য তৃণমূল থেকে বিজেপি নেতাদের নিয়ে যে এখনও পর্যন্ত তৃণমূল নেত্রী কোনো চিন্তা-ভাবনা করছেন না, তা আবারও স্পষ্ট হয়ে গেল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একাংশ বলছেন, এদিন তৃণমূলের শহীদ দিবসের ভার্চুয়ালি মঞ্চে গুটিকয়েক নেতা উপস্থিত ছিলেন। আর তার মধ্যে যে মুকুল রায় থাকবেন, তা অনেকেই কল্পনা করতে পারেননি। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংসর্গ ছেড়ে মাঝে মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদান করলেও আবার তৃণমূলে ফিরে আসার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝিয়ে দিয়েছেন, তার কাছে মুকুল রায়ের ভূমিকা কতটা। এক্ষেত্রে নির্বাচনের আগে মুকুল রায় সেভাবে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়নি বলেও জানিয়ে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার ফলে মনে করা হয়েছিল যে, মুকুল রায় আবার একইভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে গুরুত্ব পেতে চলেছেন। আর শহীদ দিবসের মঞ্চে তাতেই সীলমোহর পড়ল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সেদিক থেকে মুকুল রায়ের সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতারা এখন বিজেপির সঙ্গে থাকতে না চেয়ে তৃণমূলে যোগদানের ব্যাপারে তলায় তলায় ইচ্ছা প্রকাশ করলেও, তাদেরকে গ্রহণ করার ব্যাপারে যে এখনই কোনোরকম পদক্ষেপ নিতে চাইছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তা তৃণমূল কংগ্রেসে তার যোগদানের মধ্য দিয়েই স্পষ্ট হয়ে গেল। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!