এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ‘মুখ্যমন্ত্রী একটি আঁচড় কাটলেই দুকোটিতে বিক্রি হয়’, বিশ্ববাংলা বিতর্ক বাড়ালেন মুকুল

‘মুখ্যমন্ত্রী একটি আঁচড় কাটলেই দুকোটিতে বিক্রি হয়’, বিশ্ববাংলা বিতর্ক বাড়ালেন মুকুল



‘মুখ্যমন্ত্রী একটি আঁচড় কাটলেই দুকোটিতে বিক্রি হয়’, এদিন এই ভাষাতেই বিশ্ববাংলা প্রসঙ্গে কটাক্ষ করলেন মুকুল রায়। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পরই মুকুল রায় বিশ্ববাংলা নিয়ে বড়সড় অভিযোগ তুলেছিলেন। যা ঘিরে রাজ্য রাজনীতি তোলপাড় হয়ে গিয়েছিলো।এদিন মুখ্যমন্ত্রীর আঁকা লোগোকে পশ্চিমবঙ্গের প্রতীককে স্বীকৃতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর তার পরেই নানা প্রশ্ন উঠতে থাকে।যেমন মুকুল রায় কেন চুপ করে আছেন? বা তার অভিযোগ সঠিক নয় কি ? এদিন সব নিরাবতা ভেঙে বিশ্ববাংলা প্রসঙ্গে ফের মুখ খুললেন। তিনি মেনে নিয়েছেন যে বিশ্ববাংলার লোগো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই এঁকেছেন,তবে তিনি যায় স্পষ্ট করেন যে তাঁর অভিযোগের ওপর অস্বস্তিতে পরেই শাসকদল বিপাকে পড়ে রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গের প্রতীক থেকে বিশ্ববাংলা শব্দটি তুলে নিয়েছে। এবং বিশ্ববাংলা শব্দটির জায়গায় বাংলায় ‘পশ্চিমবঙ্গ’ ও ইংরেজিতে ‘ওয়েস্টবেঙ্গল’ শব্দ দু’টি বসিয়েছে।তিনি এদিন বীরভূমের তাঁতিপাড়ায় বিজেপির জনসভা থেকে একটি ট্যাবে বিশ্ববাংলার লোগোটি তুলে ধরেন।এবং বলেন যে বিশ্ববাংলার লোগো আর এই লোগোর মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। শুধু বদল করা হয়েছে নামটাই। সেখানে বিশ্ববাংলা শব্দটি ছিল।এখানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ ও ওয়েস্ট বেঙ্গল।পাশাপাশি তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি। তিনি বলেন যে,”মুখ্যমন্ত্রীর অনেক প্রতিভা। তিনি একটি আঁচড় কাটলেই, তা দু’কোটি টাকায় বিক্রি হয়।”যদি বিশ্ববাংলার লোগো আর পশ্চিমবঙ্গের লোগোর মধ্যে পার্থক্য বলতে সত্যিই এটুকুই। তবে এখনো পর্যন্ত এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বা তৃণমূলের তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!