এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > নভেম্বরের পর থেকে প্রশাসনের উপর কর্তৃত্ত্ব থাকবে না মমতা ব্যানার্জির: মুকুল রায়

নভেম্বরের পর থেকে প্রশাসনের উপর কর্তৃত্ত্ব থাকবে না মমতা ব্যানার্জির: মুকুল রায়



দক্ষিণ দিনাজপুরের দৌলতপুরে দলীয় প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে গিয়ে এক জনসভা থেকে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস ও তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমন করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। মুকুলবাবু বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনে কমিশন-টমিশন করার দরকার ছিল না, এসব লোক হাসানো ব্যাপার। মমতা নিজেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের একটা অর্ডার বের করে বলতেন, উনিই নির্বাচন কমিশনার, উনিই পঞ্চায়েত নির্বাচন পরিচালনা করবেন। এরপর ছত্রধর মাহাতো প্রসঙ্গেও তিনি তীব্র আক্রমন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনি বলেন, মমতার অভ্যাস কী? যে মমতাকে হাত ধরে নিয়ে আসে তাকেই ছুঁড়ে ফেলে দেয়, ছত্রধর মমতাকে হাত ধরে নিয়ে এল জঙ্গলমহলে। সে আজ জেলে আছে! ছত্রধরকে নিয়েছ তুমি, মোটরসাইকেলে চেপেছ তুমি, তাকে নিয়ে আন্দোলনও করেছ তুমি, তাকে জেলেও ঢুকিয়েছ তুমি!

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এরপরেই বিরোধীদের সভা করার অনুমতি না দেওয়ার অভিযোগে তিনি একযোগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সুপার প্রসূন ব্যানার্জিকে তীব্র আক্রমন করেন। মুকুল রায় বলেন, জেলায় সভার অনুমতি প্রশাসন দিচ্ছে না। পুলিশ সুপারের সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক, তা সত্ত্বেও এসব হচ্ছে, প্রসূনের কিছু করার নেই। কারণ, নবান্নের নির্দেশে ওকে কাজ করতে হচ্ছে। তবে, এটা মনে রাখবে তোমার এখনও ১০ বছর চাকরি আছে, ততদিন নবান্নে মমতা থাকবেন না। ৬ মাস পর থেকে লোকসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে প্রশাসনের উপর কর্তৃত্ব করবে নির্বাচন কমিশন, সুতরাং নভেম্বরের পর থেকে তুমি কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ পালন করতে পারবে না।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!