এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ‘বিশ্ব-বাংলা’র মালিকানা নিয়ে নাবান্নকে বিস্ফোরক চিঠি পাঠালেন মুকুল রায়

‘বিশ্ব-বাংলা’র মালিকানা নিয়ে নাবান্নকে বিস্ফোরক চিঠি পাঠালেন মুকুল রায়



গত শুক্রবার ধর্মতলার সভায় মুকুল রায় ‘বিশ্ববাংলা’ নিয়ে এক বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন। এর পর থেকেই রাজ্য রাজনীতি সরগরম। ওই সভা থেকে মুকুলবাবু দাবি করেন, অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপে ব্যবহৃত বিশ্ববাংলার লোগো সরকারের নয়। বিশ্ববাংলা কোনও সরকারি সংস্থাও নয়। বিশ্ববাংলা একটি বেসরকারি কোম্পানি, যার মালিক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সাথে এই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো তা বোঝাতে সরকারি নথিতে থাকা বাড়ির ঠিকানার উল্লেখ করেছিলেন মুকুল বাবু। ফলে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে বড় লড়াইয়ের মুখোমুখি হয়েছেন মুকুল বাবু।এর পরেই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মুকুল রায় ক্ষমা না চাইলে ফৌজদারি মামলার হুমকি দিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকারও পিছপা হয়নি, স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্য দাবি করেন ‘বিশ্ববাংলা’-র মালিক রাজ্য সরকার ,অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নয়। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও একই দাবি করেছিলেন। এরপরেও মুকুল রায় থেমে থাকেন নি তিনিও হুমকি অগ্রাহ্য করে রাজ্যের দুই সচিব অত্রি ভট্টাচার্য এবং রাজীব সিনহাকে চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে তিনি দাবি করেছেন যে ‘বিশ্ববাংলা’ নিয়ে রাজ্য সরকার জনসাধারণকে ভুল তথ্য দিচ্ছেন। এছাড়া অত্রি ভট্টাচার্যকে পাঠানো চিঠিতে তিনি লিখেছেন, চলতি বছরের গত ৮ জুন প্রকাশিত ভারত সরকারের ট্রেড মার্ক অথরিটির পুস্তিকা বলছে ওই লোগোর মালিক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বিষয়ে যাবতীয় তথ্য তাঁর কাছে বলেও দাবি করেছেন মুকুল বাবু। এছাড়া তিনি বলেছেন, একজন প্রশাসনিক কর্তা হিসেবে কোনও রাজনৈতিক দলের হয়ে সওয়াল করা আইনসঙ্গত নয়।রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবের বিরুদ্ধে কেন্দ্রের উচিত প্রশাসনিক তদন্ত করা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!