এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মুকুল দিল্লির দিকে পা বাড়াতেই ফের উঠল মন্ত্রী হবার জল্পনা, জোর শোরগোল রাজ্যে!

মুকুল দিল্লির দিকে পা বাড়াতেই ফের উঠল মন্ত্রী হবার জল্পনা, জোর শোরগোল রাজ্যে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বর্তমানে বঙ্গ বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়ের দিল্লি যাত্রা নিয়ে ব্যাপক জল্পনা ছড়িয়েছে বাংলার রাজনৈতিক মহলে। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পর গেরুয়া শিবিরকে প্রভূত সাফল্য এনে দিয়েছেন তিনি। লোকসভা নির্বাচনে 18 টি আসন পাইয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে তৃণমূলের ঘর ভাঙ্গানো, সমস্ত কিছুতেই কার্যত বিজেপির শক্তি বাড়িয়ে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের অত্যন্ত আস্থাভাজন হয়ে উঠেছেন তিনি।

কিন্তু তা সত্ত্বেও তাকে এখনই পর্যন্ত কোনো পদ দেওয়া হয়নি। না তিনি দলের কোনো দায়িত্বে রয়েছেন, না তিনি মন্ত্রিত্ব পেয়েছেন। তবে সাম্প্রতিক কালে বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন তৈরি হয়েছিল যে, মুকুল রায় এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা পেতে পারেন। সেই মত করে কিছুদিন আগেই দিল্লিতে গিয়ে অমিত শাহর সঙ্গে দেখা করে এসেছিলেন হেভিওয়েট এই বিজেপি নেতা। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে তাকে। যার ফলে তার অনুগামী থেকে শুরু করে অনেকের মনেই হতাশা তৈরি হয়েছিল।

এভাবেই কি মুকুল রায় কে দিয়ে কাজ করিয়ে নিয়ে তাকে কোনো পথ দেবেনা ভারতীয় জনতা পার্টি তা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছিল তাঁর ঘনিষ্ঠদের মধ্যে তবে সকলকে এই ব্যাপারে ধৈর্য ধরতে বলেছিলেন মুকুল রায়। আর এবার দিল্লিতে যখন সাতদিন ধরে রাজ্য বিজেপির সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলোচনা শুরু হতে চলেছে, ঠিক তখনই প্রায় একদিন আগে দিল্লির বিমান উড়ে গেছেন বঙ্গ বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়।

স্বাভাবিকভাবেই একদিন আগে তার এই দিল্লি যাত্রা নিয়ে এবার রাজনৈতিক মহলে নতুন করে তার পদ পাওয়ার প্রসঙ্গে জল্পনা ছড়িয়েছে। জানা গেছে, বুধবার থেকে দিল্লিতে বাংলার বিজেপি নেতৃত্ব দেন নিয়ে বৈঠক করার কথা রয়েছে কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতৃত্বের। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে মঙ্গলবার দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন মুকুলবাবু। একাংশের মতে, তাহলে কি আগেভাগে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করে তার দায়িত্ব কি হবে, তা জেনে নিতে চাইছেন মুকুল রায়?

আর তাই একদিন আগেই তিনি দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন? অনেকে বলছেন, হয়ত বা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব মুকুল রায়কে আগেভাগেই ডেকে পাঠিয়েছেন‌। কেননা তাকে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি ব্যাপকভাবে কাজে লাগাবে। তাই সেদিক থেকে মুকুলবাবুকে খুশি রাখতে তাকে বিশেষ কোনো নির্দেশ দিতে পারে পদ্ম শিবির। ফলে সবাইকে নিয়ে বৈঠকের আগে তাকে বিশেষভাবে ডেকে নেওয়া হল।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বিশেষজ্ঞদের মতে, বছরের পর বছর কেটে যাচ্ছে বিজেপিকে ভালো জায়গায় নিয়ে যাচ্ছেন মুকুল রায়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তিনি কোনো পদ পাননি। ফলে তার অনুগামীদের মধ্যেই ব্যাপারে ক্ষোভ জন্মাতে শুরু করেছে। তাই এই পরিস্থিতিতে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব ব্যাপারটিকে আচ করে একদিন আগে মুকুল রায়কে দিল্লিতে ডেকে নিয়ে তাকে বাড়তি গুরুত্ব দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। কেননা অমিত শাহ ভালই জানেন যে, বাংলায় মুকুল রায়ের মতো সাংগঠনিক দক্ষ ব্যাক্তিকে তাদের কতটা প্রয়োজন।

সেদিক থেকে 2021 এর বিজেপির কাছে বাংলা যখন টার্গেট, তখন সেই মুকুল রায়কে খুশি করা ছাড়া কোনো উপায় নেই বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে। তাই একদিন আগেই মুকুল রায়ের দিল্লি সফর নিঃসন্দেহে জল্পনা সৃষ্টি করছে রাজনৈতিক মহলে। তাহলে কি অবশেষে এবার কোনো বড়সড় পদ পেতে চলেছেন মুকুল রায়?

কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে রাজ্য নেতৃত্বের বৈঠকেই কি এই ব্যাপারে আশার আলো দেখা যাবে? বস্তুত, মুকুল রায়ের হাত ধরে যারা ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিয়েছেন, সেই সব্যসাচী দত্ত থেকে শুরু করে অর্জুন সিংহ, সৌমিত্র খাঁ প্রত্যেকেই বিজেপির রাজ্য কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পেয়েছেন। এক্ষেত্রে শুধুমাত্র ব্রাত্য রয়েছেন মুকুল রায়। তাই তার মত হেভিওয়েট নেতা এবার যে বড় জায়গা পাবেন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

কিন্তু কবে সেই সময় আসবে, তা নিয়ে নিঃসন্দেহে দীর্ঘদিন ধরেই জল্পনা চলছে। কিন্তু এবার দিল্লিতে বৈঠকের একদিন আগেই মুকুল রায়ের এই দিল্লি যাত্রা তার অনুগামীদের মধ্যে তৈরি করেছে আশার আলো। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, বৈঠক শুরু হওয়ার আগে মুকুল রায়ের যাত্রা তাঁর পদোন্নতির কোনো সংকেত বহন করে কিনা, তার দিকেই নজর থাকবে রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!