এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > কুণাল ঘোষের বাড়িতে মুকুল রায়, বাড়ল জল্পনা

কুণাল ঘোষের বাড়িতে মুকুল রায়, বাড়ল জল্পনা



বুধবার রাতে কুণাল ঘোষের বাড়িতে যান বিজেপি নেতা মুকুল রায়, সেখানে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয় দুজনের। আর এরফলেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা। কেননা কুনাল ঘোষের পুজোর উদ্বোধনে গিয়েই বেশ কিছু বিস্ফোরক মন্তব্য করেন মুকুল রায় আর তার পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে দলবিরোধী কাজের জন্য দল থেকে সাসপেন্ড করে রাজ্যের শাসকদল। যদিও তা আগাম আঁচ করে তার আগেই তৃণমূল থেকে নিজের পদত্যাগের কথা এক সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দেন মুকুল রায়।
কিন্তু এরপরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে সরব হন কুনাল ঘোষ। এমনকি তাঁর বর্তমান পরিস্থিতির জন্য তিনি মুকুলবাবুকেই দায়ী করেন। এমনও শোনা যায় কুনাল ঘোষ এরপরে বিজেপির ছয় শীর্ষনেতাকে গোপন চিঠি দিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ আনেন মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে, যার পরিপ্রেক্ষিতে ক্রমশ জটিল হতে থাকে মুকুল রায়ের বিজেপিতে যোগদান।
এহেন পরিস্থিতিতে কুনাল ঘোষ ও মুকুল রায়ের সাক্ষাৎ জল্পনা উস্কে দিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও উভয়েই ব্যাপারটিকে সৌজন্য সাক্ষাত্‍ বলেই বর্ণনা করেছেন। বুধবার রাতে কুণাল ঘোষের বাড়ি থেকে বেরনোর পর বিজেপি নেতা মুকুল রায় জানান, সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছিলাম, মান অভিমান হয়েছিল হয়তো, তাই বলে মুখ দেখাদেখি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরিস্থিতি হয়নি। অন্যদিকে, কুণাল ঘোষ সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান, দুজনের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের, কিছু বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। উনি ওঁর জীবনে একটি নতুন রাজনৈতিক ইনিংস শুরু করেছেন, ব্যক্তিগতভাবে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি, কিন্তু কিছু রাজনৈতিক দ্বিমত আছে। মুকুল রায় যা বলেছেন, তার একটি অংশ বাস্তবসম্মত। কিন্তু নিজেকে এখনও একজন পুরনো, কঠিন সময়ের তৃণমূল কংগ্রেসের সৈনিক বলে মনে করি। কিছু ইস্যুভিত্তিক বক্তব্য আছে, জীবনের খুব কঠিন দিনেও দল ছাড়ার কথা ভাবিনি, অন্য কোনও দলে যাওয়ার চিন্তাভাবনাও নেই। তবে রাজনৈতিক ভবিষ্যৎবাণীর অনিশ্চয়তার কথা ভেবেই এতে করেও জল্পনা আটকাচ্ছে না।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!