এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > নাম না করে পার্থ চ্যাটার্জিকে আরো বড় অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন মুকুল রায়

নাম না করে পার্থ চ্যাটার্জিকে আরো বড় অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন মুকুল রায়



বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা, সবং উপনির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী অন্তরা ভট্টাচার্যকে পাশে বসিয়ে আবারো তীব্র আক্রমনের হুল ফোটালেন সদ্য তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা মুকুল রায়। তাঁর নিশানায় এবার রাজ্য সরকার, পার্থ চ্যাটার্জী ও মানস ভূঁইয়া। একের পর এক তোপ দেগে এদিনের সভামঞ্চ থেকে মুকুল রায় বলেন –

১. তৃণমূল সরকারের আমলে রাজ্যে চিটফান্ড ব্যবসার শুধু রমরমা ঘটেনি, বরং এই সরকারের হাত ধরে চিটফান্ড কার্যত কর্পোরেট সংস্থায় পরিণত হয়েছে
২. এই সরকার চিটফান্ডকে কার্যত কর্পোরেট মর্যাদায় পৌঁছে দিয়েছে
৩. মাদার ডেয়ারির মতো প্রতিষ্ঠিত সংস্থার ৪৭ শতাংশ শেয়ার মাত্র ৮৭ কোটি টাকায় বিক্রি করে দিল ক্যাভেনটেজকে
৪. একবছরের মধ্যেই সেই শেয়ার বিক্রি করে ক্যাভেনটেজ কোটি টাকা কামিয়ে নিল
৫. ও (তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়) আমাকে বুড়োভাম বলছে, তাতে আমি কিছু মনে করিনি। কারণ, আমি তো বয়সে প্রায় ওর দু’ কাকার সমান
৬. তবে ও (পার্থ চট্টোপাধ্যায়) যে বাচ্চা ছেলে আমি তার প্রমাণ পেয়েছিলাম, গত বিধানসভা নির্বাচনের পর
৭. মাত্র সাড়ে তিন হাজার ভোটের ব্যবধানে জেতার পর ও (পার্থ চট্টোপাধ্যায়) হাউ হাউ করে কেঁদে বলেছিল, দাদা আরেকটু হলে হেরে যেতাম!
৮. যে বাচ্চার মতো কাঁদে, তাকে বাচ্চা ছেলে ছাড়া আর কি বা বলা যেতে পারে
৯. এখানকার একজন মানুষ রয়েছেন যিনি সারাজীবন সিপিএমের দালালি করে কংগ্রেস করেছেন
১০. এখন আবার তিনি তৃণমূলে ভিড়েছেন, এমন ধান্দাবাজ ব্যক্তির স্ত্রীকে ভোট দেওয়ার অর্থ নিজের ভোটটি নষ্ট করা

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!