এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > উলটপুরাণ! এবার খোদ তৃণমূল নেত্রীর কাছে আর্জি মুকুল রায়ের! কি সেই আর্জি? শুনবেন মমতা?

উলটপুরাণ! এবার খোদ তৃণমূল নেত্রীর কাছে আর্জি মুকুল রায়ের! কি সেই আর্জি? শুনবেন মমতা?



লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই ধর্ম নিয়ে যেন অবিরাম যুদ্ধ শুরু হয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে। সম্প্রতি রথযাত্রাতেও সেই যুদ্ধ তীব্র আকার ধারণ করল। বস্তুত, বৃহস্পতিবারই ইসকনের রথযাত্রা উপস্থিত হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে তাঁর সাথে সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছিল বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহানকে। যেখানে নুসরত জাহানও রথের রশিতে টান দেন। যা নিয়ে বিভিন্ন মহলের তরফে নানা প্রশ্ন শুরু হয়ে গেছে।

আর এবার সেই প্রশ্নের রেশ ধরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তাঁরই প্রাক্তন সৈনিক তথা বঙ্গ বিজেপির হেভিওয়েট নেতা মুকুল রায়। সূত্রের খবর, এদিন রাজ্য বিজেপির সদর দপ্তরে একটি সাংবাদিক বৈঠকে মুকুল রায় বলেন, “ধর্ম নিয়ে আমি কিছু বলতে চাইছি না। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নুসরতকে নিয়ে গিয়ে রথের রশিতে টান দিয়েছেন। তা বেশ ভালো কথা। আমাকে হিন্দু সম্প্রদায়ভুক্ত প্রতিষ্ঠিত এক মানুষ প্রশ্ন করেছেন যে, তাঁর ধর্মীয় অবস্থান না পাল্টে তিনি হজে যেতে চান, মুখ্যমন্ত্রী কি তার ব্যবস্থা করে দেবেন?”

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সংখ্যালঘু ঘরের মেয়ে নুসরত জাহান সদ্য বিয়ে করেছেন হিন্দু রীতি মেনে। কিন্তু, এরপরে হিন্দু সাজপোশাক তাঁর গায়ে দেখা গেলেও, নিজেই জানিয়েছেন তিনি এখনও মনে মনে মুসলিম। আর তাই, তাঁর রথের রশিতে টান দেওয়াকে ভালো চোখে মেনে নিতে পারেননি অনেকেই। আর তাই পরোক্ষে এদিন নুসরত জাহান রথের রশিতে টান দিয়ে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করেছে বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ।

প্রসঙ্গত, সাংসদ হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন সময় নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। যেখানে প্রথমেই সংসদে শপথের সময় শাড়ি, সিঁদুর, মঙ্গলসূত্র পড়ে সকলকেই চমকে দেন তিনি। কিন্তু তাঁর এই বেশভূষায় শপথগ্রহণকে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু সমাজের পক্ষ থেকে তাঁর প্রবল বিরোধিতা করা হয়। এমনকি তাঁর ধর্মীয় অবস্থান নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করতেও সংখ্যালঘু সমাজ থেকে চাপ আসতে থাকে। যার জেরে নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে হয় তাঁকে।

তবে সংখ্যালঘুদের পক্ষ থেকে নুসরত জাহানের এহেন আচরণের বিরোধিতা করা হলেও, তাঁর পাশে দাঁড়াতে দেখা যায় বিজেপিকে। কিন্তু প্রবল বিরোধী বিজেপির পক্ষ থেকে নুসরত জাহানের পাশে দাঁড়ানো হলেও তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে কোনো বিবৃতি না দেওয়ায় রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে যায়। এদিন এই প্রসঙ্গে মুখ খোলেন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। তিনি বলেন, “ভিত্তিহীন বিষয়ে আমার মাথা ঘামিয়ে লাভ নেই। জন্ম থেকে আমি মুসলিম, আর এখনও তাই। এটা সম্পূর্ণই বিশ্বাসের ব্যাপার।” কিন্তু, বাগে পেয়ে এই বিতর্কিত বিষয়ে তৃণমূল নেত্রীকে এই ব্যাপারে কোনঠাসা করার চেষ্টা মুকুল রায়ের, মমতা ব্যানার্জি কোন পথে তা সামলান – এখন সেটাই দেখার!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!