এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > অভিষেকের করা মামলায় শোকজ খেয়ে কি বলছেন মুকুল রায়?

অভিষেকের করা মামলায় শোকজ খেয়ে কি বলছেন মুকুল রায়?

Priyo Bandhu Media


রানী রাসমণি রোডের দলীয় সভা থেকে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা মুকুল রায় নথি দেখিয়ে দাবি করেন বিশ্ব বাংলা ও জাগো বাংলার লোগোর মালিক রাজ্য সরকার বা তৃণমূল কংগ্রেস নয়, এর মালিক হলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী মুকুল রায়কে আইনি নোটিশ পাঠান এবং সেখানে জানানো হয় মুকুল রায় যদি প্রকাশ্যে ক্ষমা না চান তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হবে। অভিষেক বাবুর দেওয়া সময়ের মধ্যে মুকুল বাবুর তরফ থেকে কোনো ক্ষমা চাওয়া না হওয়ায় অভিষেক বাবুর আইনজীবী আলিপুরদুয়ার আদালতে মুকুল বাবুর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। সেই মামলার শুনানিতে মুকুল রায়কে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতিকে নিয়ে বিশ্ববাংলাকে জড়িয়ে কোনও মন্তব্য করতে নিষেধ করা হয়।
কিন্তু তারপরেও বিজেপির রাজ্য সদর দফতরে মুকুলবাবু সেই একই বিষয়ে সাংবাদিক বৈঠকে কথা বলেন। তার ভিত্তিতেই আলিপুরদুয়ার আদালত তাঁকে শোকজ করেছে বলে সূত্রের খবর। আদালতের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও তিনি কেন এমন মন্তব্য করলেন, তা জানতে চাওয়া হয়েছে।
এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে মুকুল রায়ের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি, তবে তাঁর আইনজীবী সোম মণ্ডল জানিয়েছেন, এর আগে আদালত মুকুল রায়কে অভিষেকের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন মন্তব্য করতে নিষেধ করেছিল, কোনও নথি ছাড়া যেন অভিষেকের বিরুদ্ধে মুকুল রায় কোনও মন্তব্য না করেন, সেই বিষয়েই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু গত শনিবার মুকুল রায় যে সাংবাদিক বৈঠক করেন, সেখানে তিনি সমস্ত নথি নিয়েই হাজির হয়েছিলেন। আর সেদিন যা কথা বলেছেন মুকুল রায় তা সেই নথি দেখিয়েই করেছেন, তাই ই ঘটনা কখনও আদালতকে অবমাননা হতে পারে না। তবে তারপরও কেন আদালত এই নির্দেশ দিল, তা কাগজপত্র দেখার পরই বোঝা যাবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!