এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বঙ্গ-বিজেপির রাশ কি ধীরে ধীরে কৈলাশ-মুকুলের হাতে? ক্রমশ ব্রাত্য দিলীপ? তীব্র জল্পনা শুরু

বঙ্গ-বিজেপির রাশ কি ধীরে ধীরে কৈলাশ-মুকুলের হাতে? ক্রমশ ব্রাত্য দিলীপ? তীব্র জল্পনা শুরু



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – শাসক থেকে বিরোধী পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরাই দূর্গা পূজার সঙ্গে যুক্ত থাকে। কিন্তু নেতাকর্মীদের দূর্গাপূজার সঙ্গে যুক্ত থাকতে দেখা গেলেও সেভাবে কোনো রাজনৈতিক দলকে এর আগে পুজোর সঙ্গে যুক্ত থাকতে দেখা যায়নি। কিন্তু এইবার প্রথম বিজেপির পক্ষ থেকে সেই পুজোর আয়োজন করা হচ্ছে। তবে প্রথম থেকেই দুর্গোৎসবকে নিয়ে বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল সামনে চলে এসেছিল।

যেখানে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানিয়ে দিয়েছিলেন, বিজেপি কোনো পুজো করছে না। তবে তারপর মুকুল রায় জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, সেই পুজো হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই দিলীপ ঘোষ এক কথা এবং মুকুল রায় পুজো নিয়ে আরেক কথা বলায় বিজেপির অন্দরে দুর্গাপুজো নিয়ে ব্যাপক ফাটল তৈরি হয়েছিল। আর এবার দুর্গাপুজো সামনে আসতে না আসতেই সেই পুজোর দায়িত্ব মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়র হাতে যেতে শুরু করল।

সূত্রের খবর, আগামী বৃহস্পতিবার ভার্চুয়ালের মাধ্যমে পূর্বাঞ্চলীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র দুর্গাপুজোর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তারপর বঙ্গবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই এদিন বিজেপির এই দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের উদ্দীপনা চোখে পড়ে। আর প্রধানমন্ত্রী যে পুজো উদ্বোধন করবেন, সেখানে উপস্থিত হতে দেখা যায় মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়র মত বিজেপির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের। তবে আশ্চর্যজনক ভাবে এই কর্মসূচিতে হাজির হননি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর তা নিয়ে নানা মহলে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, তাহলে কি দিলীপ ঘোষের হাত থেকে ধীরে ধীরে দায়িত্ব কেড়ে নিয়ে তা দেওয়া হচ্ছে মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়র উপর? আর তাই বাংলার আবেগের প্রাণকেন্দ্র দুর্গাপুজোর মত গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচির দায়িত্ব এই সমস্ত নেতাদের কাঁধে দেওয়া হল? বিজেপির একাংশ বলছেন, এই সমস্ত যুক্তি ভিত্তিহীন। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন। তাই তিনি এই পুজোর প্রস্তুতি পরিদর্শন করতে আসতে পারেননি। এর পেছনে কোনো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নেই।

বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, কিছুদিন আগেই মুকুল রায়কে বিজেপি কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতির দায়িত্ব দিয়েছে। আর তারপর থেকেই মুকুল রায়ের গুরুত্ব বাড়তে শুরু করেছে ভারতীয় জনতা পার্টিতে। তবে মুকুল রায়কে যেদিন বড় পদ পাওয়ার জন্য সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছিল, সেদিন সেই অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ। যার ফলে মুকুল রায় পদ পাওয়ায় তিনি খুব একটা ভালোভাবে নেননি, তা বুঝে গিয়েছিল সমালোচক মহলের একাংশ।

কিন্তু এবার দুর্গাপুজোর প্রস্তুতিতেও সেই মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয় উপস্থিত হলেও, দিলীপ ঘোষের অনুপস্থিতি বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকে বড় করে দেখাতে শুরু করেছে। তাহলে কি এবার মুকুল রায়ের উত্থানে কিছুটা কোনঠাসা দিলীপ ঘোষ! তা নিয়েই বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!