এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ক্লান্ত মুখ্যমন্ত্রী নাকি ঐতিহ্যের নামে আতঙ্ক? বিধানসভার আগে কোন ইস্যুতে উঠতে চলেছে ঝড়?

ক্লান্ত মুখ্যমন্ত্রী নাকি ঐতিহ্যের নামে আতঙ্ক? বিধানসভার আগে কোন ইস্যুতে উঠতে চলেছে ঝড়?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সামনেই রয়েছে বিহারের বিধানসভা নির্বাচন। বিহারের এই বিধানসভা নির্বাচনে নীতিশ কুমার তথা এনডিএ জোটের প্রবল প্রতিপক্ষ হিসেবে নির্বাচনী লড়াইতে নামতে চলেছে আরজেডি, কংগ্রেস, বাম জোট। আরজেডি দলের সুপ্রিমো লালুপ্রসাদের পুত্র তেজস্বী যাদব এই নির্বাচনে বিরোধী জোটের পদপ্রার্থী হয়েছেন। রাঘোপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তিনি নির্বাচনে লড়াই করছেন। ইতিপূর্বে গত ২০১৫ এর নির্বাচনে প্রথমবার এই কেন্দ্র থেকে বিধানসভা নির্বাচনে দাঁড়িয়ে, জয়লাভ করে বিহারের উপ মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন ৩১ বছরের এই নেতা।

বিহারের মোট ২৪৩ টি বিধানসভা আসনের মধ্যে লালুপ্রসাদের দল আরজেডি প্রার্থী দিতে চলেছে ১৪৪ টি আসনে, কংগ্রেস প্রার্থী দিচ্ছে ৭০ টি আসনে, সিপিআইএম দিচ্ছে ৪ টি আসনে, সিপিআই প্রার্থী দেবে ৬ টি আসনে, সিপিআইএমএল প্রার্থী দিচ্ছে ১৯ টি আসনে।

দুদিন আগেই রাঘোপুর বিধানসভা কেন্দ্রে নিজের মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় গণ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন লালুপ্রসাদ যাদবের পুত্র তেজস্বী যাদব। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে আক্রমণ করে তিনি বলছিলেন যে, তাঁদের দল ক্ষমতায় এলেই তাঁরা তাদের সমস্ত প্রতিশ্রুতি পালন করবেন। তিনি নিশ্চিত যে, তাদের দল সরকার গঠন করবে। তিনি আশাবাদী বিহারের মানুষ তাদের ভোট দিয়ে জয় লাভ করাবেন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আজ শুক্রবার আবার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারকে তিনি তীব্রভাবে কটাক্ষ করলেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। এ প্রসঙ্গে পাটনার সংবাদ সংস্থা এএনআইকে তিনি জানালেন, “বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। রাজ্যের ভার সামলানো ওঁর পক্ষে সম্ভব নয়। উনি উন্নয়ন, বেকারত্ব, শিক্ষা, স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ও দারিদ্র নিয়ে কথা বলতে চান না। উনি বলেন বিহারে জমি সমস্যায় শিল্প স্থাপন করা যায় না। তাই চাকরির সুযোগও তৈরি হয় না।”

মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে একাধিক বক্তব্য রাখার পর আরজেডিকে পাল্টা আক্রমণ করল বিজেপি নেতৃত্ব। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ আরজেডি দল সম্পর্কে একটি টুইট করে জানালেন, “আরজেডি দপ্তর অতিক্রম করার সময় ঐতিহ্যের ছবি খুঁজছিলাম। কিন্তু কোথাও সেটা পেলাম না। ঐতিহ্যের কথা বললে মনে পড়ে যায় আতঙ্কের কথা, লুঠপাটের কথা, দুর্নীতির কথা। ছবি লুকিয়ে কি আপনারা আপনাদের ঐতিহ্য ভুলতে পারবেন? ”

অন্যদিকে বিজেপির প্ৰাক্তন নেতা অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা আজ তাঁর পুত্র লব সিনহার রাজনীতির অঙ্গনে পদচারণা সম্পর্কে একটি টুইট করলেন। প্রসঙ্গত, বাঁকিপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে কংগ্রেস দলের হয়ে লড়াই করবেন লব সিনহা। এ বিষয়ে বর্ষীয়ান অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা জানালেন যে, সাধারণ মানুষের দাবি মেনে ও কংগ্রেস নেতৃত্বের নির্দেশে তার অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাণকারি পুত্র লব সিনহা এবারে রাজনীতির আঙ্গিনায় পা দিলেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!