এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ব্যাতিক্রমী আচরণ করে মানুষের মন জয় করলেন বাংলার এই সাংসদ, পয়েন্ট বাড়লো দলের

ব্যাতিক্রমী আচরণ করে মানুষের মন জয় করলেন বাংলার এই সাংসদ, পয়েন্ট বাড়লো দলের



নেতা, মন্ত্রী বা সাংসদ হলেই ক্ষমতার দাপটে তাদের আর টিকিটিও পাওয়া যায় না। এই অভিযোগ জনসাধারণের দীর্ঘদিনের। কিন্তু এক্ষেত্রে যেন কিছুটা ব্যতিক্রমী ভূমিকায় দেখা গেল বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে। অনেকেরই ধারণা, ক্ষমতার স্বাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই লাক্সারি গাড়ি এবং নিরাপত্তারক্ষী নিয়েই পথ চলেন নেতারা। কিন্তু এবার সেক্ষেত্রে কিছুটা পরিবর্তন এনে বাসে চড়েই সফর করতে দেখা গেল বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদকে।

বস্তুত, বৃহস্পতিবার রাজ্য বিজেপির সভাপতি নির্বাচন ছিল। সকাল 11 টায় ন্যাশনাল লাইব্রেরীতে একটি বৈঠক শুরু হয়। আর সেই বৈঠকে যোগ দিতেই বালুরঘাট থেকে ট্রেনে করে সকাল সকাল শিয়ালদা পৌঁছে গিয়েছিলেন সুকান্ত বাবু। আর শিয়ালদা স্টেশনে ট্রেন আসার সাথে সাথেই যখন সমস্ত যাত্রীরা কেউ ট্যাক্সি, আবার কেউ বা গাড়ি করে বাড়ি ফিরছেন, ঠিক তখনই সাদামাটা বাসে চড়তে দেখা গেল সুকান্ত মজুমদারকে।

যা দেখে রীতিমতো হতবাক হয়ে গিয়েছেন সকলেই। বর্তমান যুগে পঞ্চায়েত প্রধান থেকে পৌরসভার প্রধানরা নিজেদের গাড়ি ছাড়া অন্য গাড়িতে সফর করেন না। ফলে সেদিক থেকে সাংসদ হয়ে সুকান্তবাবুর এই সাদামাটা সফর জনসাধারণকে অনেকটাই খুশি করে তুলেছে। কিন্তু এভাবে বাসে করে সফর কেন!


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার বলেন, “শুধু কলকাতায় নয়, আমার বালুরঘাটেও আমি আগের মতই সাধারন ভাবেই চলাফেরা করি। স্কুটি নিয়ে ঘুরি। আমি কখনও নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে কলকাতায় আসি না।” কিন্তু সামান্য নেতা হয়ে যেভাবে অন্যান্যরা লাক্সারি গাড়ি করে ঘুরতে শুরু করেন, সেখানে ভিড়ে ঠাসা বাসে চড়ে সফর করতে তার কোনো অসুবিধা হল না!

এদিন এই প্রসঙ্গে সুকান্ত মজুমদার বলেন, “কিসের সমস্যা! কলকাতায় বা দক্ষিণবঙ্গে আমাকে চেনেন কজন! উত্তরবঙ্গে অনেকেই চেনেন। কিন্তু সেখানেও তো অসুবিধা হচ্ছে না। তাহলে কলকাতায় বাসে চড়তে আর কি অসুবিধা!” সব মিলিয়ে বাসে সফররত সাদামাটা সাংসদকে পেয়ে রীতিমতো উজ্জীবিত জনসাধারণ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!