এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মহানগরকে নিয়ে ঢালাও প্রতিশ্রুতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

মহানগরকে নিয়ে ঢালাও প্রতিশ্রুতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ বঙ্গ সফরে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সাংবাদিক বৈঠকে যোগদান করলেন তিনি। সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, একসময় সিঙ্গাপুরের ডেভেলপমেন্ট মডেল ছিল কলকাতা। কলকাতা সিটি অফ জয় থাকবেই, সেইসাথে কলকাতাকে সিটি অফ ফিউচার করা হবে। কলকাতার পরিকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটানো হবে। কলকাতাকে ইউনেস্কোর হেরিটেজ সিটি করা হবে। বাংলার সংস্কৃতির হাল খারাপ করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নোবেল পুরস্কারের মতো রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর পুরস্কার চালু করা হবে। অস্কার পুরস্কারের আদলে চালু করা হবে সত্যজিৎ রায় পুরস্কার।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, আদিগঙ্গা পুনরুজ্জীবনে বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। কলকাতাকে করে তোলা হবে দেশের দ্বিতীয় আর্থিক রাজধানী। কলকাতার উন্নয়নের জন্য অর্থ বরাদ্দ করা হবে। সেইসঙ্গে উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হবে বিজেপির পক্ষ থেকে। তিনি অভিযোগ করেছেন, উত্তরবঙ্গ বাসী ও গোর্খাদের বঞ্চনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, কলকাতা থেকেই সূচনা হবে সোনার বাংলার। উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য বিশেষ বোর্ড গঠন করা হবে। কোচবিহারে স্থাপন করা হবে প্যারা মিলিটারি ট্রেনিং সেন্টার। সিএপিএফতে নারায়ণী সেনার ব্যাটেলিয়ান করা হবে। কৃষকদের প্রতিবছর ৬ হাজার টাকা করে অর্থ সাহায্য দেয়া হবে। বিজেপি সরকার তৈরির এক সপ্তাহের মধ্যে তাঁদের একাউন্টে পৌছে দেয়া হবে বকেয়া অর্থ। তিনি অভিযোগ করেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে সমস্ত দিক থেকে ক্ষতি হয়েছে বাংলার।

তিনি অভিযোগ করেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে বাংলাতে নারী নির্যাতন সবচেয়ে বেশি হয়েছে। সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংক নিয়ে তিনি যে মন্তব্য করেছেন, তা শোভনীয় নয়। নির্বাচন কমিশনের অধীনে কাজ করে থাকে সিআরপিএফ। সিআরপিএফ এখন আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অধীনস্থ নয়। কেন সিআরপিএফকে ঘেরাওয়ের কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী? প্রশ্ন করেছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি তাঁর অভিযোগ, তিনি অরাজকতার পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাইছেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শান্তিপূর্ণ ভোট চাইছেন না। কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে তাঁর বক্তব্য হতাশাজনক বলে কটাক্ষ করলেন তিনি। এরপরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, প্রথম ৩ দফায় ৬৩-৬৮ টি আসনে জয়লাভ করবে বিজেপি।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!