এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > মদনমোহন আবেগকে সামনে রেখেই উত্তরবঙ্গ জুড়ে বিজয় রথ ছোটানোর বিশেষ পরিকল্পনায় গেরুয়া শিবির

মদনমোহন আবেগকে সামনে রেখেই উত্তরবঙ্গ জুড়ে বিজয় রথ ছোটানোর বিশেষ পরিকল্পনায় গেরুয়া শিবির



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – কোচবিহারের ঐতিহ্যমণ্ডিত প্রাচীন মন্দির মদনমোহন মন্দির। কথায় আছে, যিনি মদনমোহন ঠাকুরের আশীর্বাদ পেয়ে যান, তাকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয় না। তাই ভোটের আগে রাজনৈতিক নেতা মন্ত্রীরা সকলেই মদনমোহন ঠাকুরের শরণাপন্ন হন। সামনে 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনে বিজেপি রাজ্যের ক্ষমতা দখল করতে রীতিমত প্রতিজ্ঞা করে ফেলেছে। সেই মতো করে রনকৌশল করছেন তারা।

আর এই পরিস্থিতিতে এবার ভোটের আগে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে এই মদনমোহন মন্দিরের সামনে থেকেই পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করার উদ্যোগ নিল ভারতীয় জনতা পার্টি। অনেকে বলছেন, আসলে বিজেপি ভোটের আগেই সাফল্য পেতে ঠাকুরের দ্বারস্থ হওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। আর তার কারণেই পরিবর্তন যাত্রা এই মদনমোহন মন্দির থেকে শুরু করার চিন্তাভাবনা করেছে তারা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে উত্তরবঙ্গের সব কটি বিধানসভা কেন্দ্রে এই যাত্রা করার পরিকল্পনা রয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টির। তবে সেই যাত্রা কোথা থেকে শুরু হবে, তা নিয়ে এতদিন জল্পনা তৈরি হয়েছিল। অবশেষে কোচবিহারের মদনমোহন মন্দির থেকেই এই পরিবর্তন যাত্রা সূচনা করার উদ্যোগ নিল বিজেপি। জানা গেছে, ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে গত মঙ্গলবার কলকাতায় বিজেপির পক্ষ থেকে একটি বৈঠক করা হয়েছে। যেখানে কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেননের মত নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাভাবিকভাবেই এই পরিস্থিতিতে কোচবিহার জেলার প্রতিটা বিধানসভা কেন্দ্রের মানুষের জনমত পাওয়ার পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের প্রতিটা বিধানসভা কেন্দ্রের যাতে ভালো ফল করা যায়, তার জন্য বিজেপির এই যাত্রা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। জানা গেছে, প্রথমে কোচবিহারের নটি বিধানসভা কেন্দ্র ছুয়ে আলিপুরদুয়ারে প্রবেশ করবে এই পরিবর্তন যাত্রা। আর তারপর জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি, রায়গঞ্জ, বালুরঘাট হয়ে তা মালদহে পৌঁছে যাবে। আর এই পরিবর্তন যাত্রা শেষ হবে ফারাক্কায়।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বিশ্লেষকরা বলছেন কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল কিন্তু গত লোকসভা নির্বাচনে এখানে বিজেপি জয় লাভ করে আর তারপর থেকেই ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য তৃণমূলে একাধিক কৌশল প্রয়োগ করতে শুরু করেছে সংগঠনটি পরিবর্তনের পাশাপাশি বর্তমানে হেভিওয়েট নেতা এবং জনপ্রতিনিধিরা জনসংযোগ করার জন্য একেবারে উঠে পড়ে লেগেছেন ।

মানুষের দরজায় দরজায় পৌঁছে যেতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূলের নেতা নেত্রীদের আর এই পরিস্থিতিতে বিজেপি পাল্টা পরিবর্তন যাত্রার মধ্য দিয়ে সেই কোচবিহার জেলা থেকেই নিজেদের এই মহতী কর্মসূচি শুরু করে সেই জেলার প্রতিটা বিধানসভা কেন্দ্র যাতে তাদের দখলে থাকে তার কৌশল গ্রহণ করল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাহলে কি কোচবিহারের মানুষের মন পাওয়ার জন্যই পরিবর্তন যাত্রা শুরু হল এই জেলা থেকে? এদিন এই প্রসঙ্গে কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামানিক বলেন, “আমরা পরিবর্তনের পরিবর্তন চাই। সেই কারণে পরিবর্তন যাত্রা করা হচ্ছে। উত্তরবঙ্গের পরিবর্তন যাত্রা কোচবিহারের ঐতিহ্যবাহী মদনমোহন মন্দিরের সামনে থেকে শুরু হবে।

উত্তরবঙ্গের সবকটি জেলার বিধানসভা কেন্দ্র ছুঁয়ে এই পরিবর্তন যাত্রা মালদহে গিয়ে শেষ হবে। এখনও পর্যন্ত ঠিক হয়েছে কোচবিহারের পরিবর্তন যাত্রাটি ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে বের হবে।” সব মিলিয়ে বিধানসভা নির্বাচনের আগে মানুষের মন পেতে কোচবিহার থেকে শুরু হওয়া বিজেপির এই পরিবর্তন যাত্রা কতটা সফলতা পায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!