এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদীর সভাতেই উপচে পড়ল মাস্কহীন জনতার ভিড়! ভোটের প্রচারে প্রশ্নের মুখে খোদ প্রধানমন্ত্রী!

মোদীর সভাতেই উপচে পড়ল মাস্কহীন জনতার ভিড়! ভোটের প্রচারে প্রশ্নের মুখে খোদ প্রধানমন্ত্রী!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনা সংক্রমনের শুরু থেকেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বারবার করে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশবাসীকে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ও মাস্ক পরিধান করতে বারবার আবেদন জানিয়েছেন তিনি দেশবাসীর কাছে। গত ৮ মাস ধরে মাস্ক পরিধান ও দো গজ দুরির প্রচার করেছেন প্রধানমন্ত্রী একাধিকবার। কিন্তু স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী সভাতেই মাস্ক পরিধান ও দো গজ দুরিকে সম্পূর্ণ নস্যাৎ করে বহু মানুষ ঠাসাঠাসি, গাদাগাদি করে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শুনতে গেলেন। বিহারের মুজফফরপুরে প্রধানমন্ত্রীর সভায় উপস্থিত বহু মানুষের মুখে মাস্ক ছিল না, করোও বা মাস্ক ছিল চোয়ালে। অথচ, এই নির্বাচনের প্রচার সভাতেও করোনা বিষয়ে সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী। সম্পূর্ণ ভাবে করোনা বিধি তথা স্বাস্থ বিধি মেনে তবেই ভোটদানের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত বিহারের মুজফফরপুরে বিহারের দ্বিতীয় দফার ভোটের প্রচারে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই নির্বাচনী প্রচার সভাতে করোনা বিধি তথা স্বাস্থ্যবিধি সম্পূর্ণভাবে উপেক্ষা করলেন জনতারা। মাস্ক না পড়েই শত শত মানুষ প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনতে গেলেন। অধিকাংশের মাস্ক চোয়ালে ঝুলতে দেখা গিয়েছিল, কেউ কেউ মাস্ক খুলে রেখে দিয়েছিলেন পকেটে, কেউ বা হাতে নিয়েছিলেন। ঠেলাঠেলি, গাদাগাদি করে প্রধানমন্ত্রীর সভা দেখলেন তারা।

প্রসঙ্গত করোনা সংক্রমণের মধ্যে বিহারেই সর্বপ্রথম ভোটের আয়োজন করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণকালে ভোটের আয়োজন করা হয়েছে বলে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে একাধিক করোনা বিধি তথা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মাস্ক পরে ভোট কেন্দ্রে আসতে বলা হয়েছে ভোটারদের। তাঁরা ভোটকেন্দ্রে পৌছলেই আগে তাঁদের হাতে স্যানিটাইজার দিয়ে দেওয়া হচ্ছে গ্লাভস। এরপর তাদের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আবার উৎসবের মরসুম শুরু হবার পূর্বেই করোনা বিষয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। দেশবাসীকে মাস্ক পরে, সামাজিক দূরত্ব মেনে উৎসবে যোগদান করার আবেদন জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এ বিষয়ে তিনি দেশবাসীকে একাধিকবার সচেতন করেছেন। ভোট শুরু হবার পরেও বিহারের বাসিন্দাদের সম্পূর্ণভাবে করোনা বিধি মান্য করে ভোট দিতে যাবার আবেদন জানিয়ে টুইট করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মাস্ক পরিধান, সামাজিক দূরত্ব পালন যে করোনা প্রতিরোধে ভীষণভাবে প্রয়োজন। সে কথা তিনি বহুবার বলে এসেছেন দেশবাসীকে। কিন্তু তাঁর সভাতেই বিহারবাসীর এইভাবে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব উপেক্ষা করায় তা নিয়ে বিস্মিত সকলে। এ বিষয়ে নানা প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত দেশে করোনা সংক্রমণ উর্ধমুখী। শীতকালে এই সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বাড়তে পারে বলে বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। এদিকে দেশের মোট করোনা সংক্রমণ ৮০ লক্ষ্যের গণ্ডি অতিক্রম করেছে। কিছু কিছু রাজ্যে করোনা সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রনে এলেও ৫ টি রাজ্যের করোনার সংক্রমণ যথেষ্টভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে মহারাষ্ট্রের পরেই করোনা সংক্রমনের কারণে মৃত্যুতে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন চার হাজারের কাছাকাছি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!