এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মির্জা গ্রেপ্তার হতেই মুকুল রায়ের চাপ বাড়িয়ে মুখোমুখি জেরায় ডেকে পাঠাল ইডি

মির্জা গ্রেপ্তার হতেই মুকুল রায়ের চাপ বাড়িয়ে মুখোমুখি জেরায় ডেকে পাঠাল ইডি



নারদা স্টিং অপারেশনে তৎকালীন তৃণমূল নেতা মুকুল রায়কে টাকা দিতে দেখা না গেলেও সেই টাকা তিনি একটি জায়গায় দিয়ে আসতে বলেছিলেন বলে ভিডিওতে দেখা যায়। যেখানে মুকুল রায়ের গলায় শোনা যায় এই টাকা তিনি নারদাকাণ্ডে ধৃত পুলিশকর্তা এসএমএসচ মির্জাকে দিয়ে আসতে বলছেন।

তবে এর কিছুদিন পরেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন সেই মুকুল রায়। যার পরেই বিভিন্ন মহলে জল্পনা তৈরি হতে থাকে, হয়ত বা নারদা কান্ড থেকে রক্ষা পেতেই মুকুলবাবু বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এবার তাকে গ্রেফতার করতে অতি সক্রিয়তা দেখাবে না সিবিআই।

কিন্তু সেই সমস্ত জল্পনাকে দমিয়ে দিয়ে বৃহস্পতিবার এই নারদা কান্ডে প্রথম এসএমএস মির্জাকে গ্রেপ্তার করার পর এবার তৎকালীন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে তলব করল সিবিআই। সূত্রের খবর, শুক্রবার সকাল এগারোটার মধ্যে সিবিআই কমপ্লেক্সে হাজিরা দেওয়ার জন্য মুকুল রায়কে জানিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

কিন্তু কেন হঠাৎ মুকুল রায়কে ডেকে পাঠাল সিবিআই? জানা গেছে, নারদা তদন্তের একেবারে শেষ পর্যন্ত পৌঁছতেই এবার এসএমএইচ মির্জা এবং মুকুল রায়কে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় সিবিআই আধিকারিকরা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, এই এসএমএইচ মির্জা টাকা নিয়েছিলেন তৎকালীন তৃণমূল নেতা মুকুল রায়ের জন্যই। তাই সেই মুকুল রায়কে জিজ্ঞাসাবাদ করা অত্যন্ত জরুরি। যদিও বা এদিন সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে জেরার ব্যাপারে মুকুল রায়কে ডাকা হলেও তিনি এই ব্যাপারে কিছু জানেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন এই বিজেপি নেতা।

অন্যদিকে নারদা কাণ্ডে ধৃত প্রথম ব্যক্তি এসএমএইচ মির্জা তার জন্য টাকা নিয়েছে এই তত্বও এদিন উড়িয়ে দিয়েছেন মুকুল রায়। এদিন এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “টাকা লেনদেনের বিষয়ে আমি কাউকে কোনো পরামর্শ দিইনি। আমাকে টাকা অফারও করতে আসেনি, আমার থেকে টাকা গ্রহণও করতে আসেনি। আমার সঙ্গে যারা দেখা করতে এসেছিল, তারা ব্যবসা করতে চেয়েছিল। আমি সেই ব্যাপারে পরামর্শ দিয়েছিলাম। টাকা লেনদেনের ব্যাপারে কোনো কথা হয়নি।”

তবে এই সমস্ত কিছুর উর্ধে উঠে তৃণমূল ছেড়ে মুকুল রায় বিজেপিতে গেলে তাকে সিবিআই কোনো তদন্তের জন্য ডাকবে না বলে বিভিন্ন মহলের তরফে মনে করা হলেও, এবার যেভাবে মির্জাকে গ্রেফতার করার পর বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে তলব করলেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা, তাতে জল্পনা প্রবলভাবে বাড়তে শুরু করেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!