এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > মতুয়াদের সংশয়কে কাজে লাগিয়ে বাজিমাতের চেষ্টা শাসকদলের, নয়া কৌশলে তৃণমূল!

মতুয়াদের সংশয়কে কাজে লাগিয়ে বাজিমাতের চেষ্টা শাসকদলের, নয়া কৌশলে তৃণমূল!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গত লোকসভা নির্বাচনে মতুয়াদের সমর্থন খুব একটা পায়নি তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু এবার বিধানসভা নির্বাচনের মুখে সেই মতুয়াদের দ্বিধা দ্বন্দ্ব এবং সংশয়কে কাজে লাগিয়ে ফায়দা তুলতে তৎপর হয়ে উঠেছে ঘাসফুল শিবির। ইতিমধ্যেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সেই মতুয়াদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতিতে অনেকেই সন্তুষ্ট হতে পারেননি।

সেদিক থেকে মতুয়া সমাজের অনেকেই এই বিষয় নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। আর এই বিষয়টিকে কাজে লাগিয়েই এখন ময়দানে নেমে পড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এক্ষেত্রে বিজেপির বিরোধিতা করে সেই সমস্ত মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে রীতিমত ভোট বৈতরণী পার হতে চাইছে ঘাসফুল শিবির বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বলা বাহুল্য, ইতিমধ্যেই রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মতুয়াদের নিয়ে মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন। একাংশ বলছেন, অমিত শাহ মতুয়াদের সভায় এসে প্রতিশ্রুতি দিলেও তৃণমূল নেতারা যেভাবে সেই দাবিকে মিথ্যে বলে কটাক্ষ করেছেন, তাতে মতুয়া সমাজের অনেকেই সংশয় পড়ে গিয়েছেন। এক্ষেত্রে তাদের দাবি সবথেকে বাস্তব, তা নিয়ে রীতিমত গুঞ্জন তৈরি হয়েছে সেই মতুয়া সমাজের মধ্যে।

অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, এখানেই বাজিমাত করার চেষ্টা করছে ঘাসফুল শিবির। তৃণমূলের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়েছে, নাগরিকদের নতুন করে নাগরিকত্ব প্রদান হয় নাকি? মতুয়ারা যদি দেশের নাগরিক নাই হবেন, তাহলে তারা ভোটাধিকার পাচ্ছেন কি করে? আর কি করে তাদের ভোটে সমর্থন পেয়ে শান্তনু ঠাকুর সংসদে গেলেন? স্বাভাবিক ভাবেই ঘাসফুল শিবিরের এই প্রশ্ন এখন মতুয়া সমাজের অনেকের মনেই বাসা বাধতে শুরু করেছে। আর এই পরিস্থিতিতে বিজেপি মতুয়া ভোট নিয়ে এবার যথেষ্ট বেগ পেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বলা বাহুল্য, অমিত শাহ মতুয়াদের সভায় এসে জানিয়ে দিয়েছেন, করোনার টিকাকরন শেষ হলেই মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কবে সেই নাগরিকত্ব হবে, এখন এটাই প্রশ্ন হিসেবে তুলে ধরে মতুয়া সমাজের মন জয় করার চেষ্টা করছে তৃণমূল কংগ্রেস। যেখানে বিজেপি’র প্রধান বিরোধিতা করে ঘাসফুল শিবির মতুয়া সমাজের সমর্থন নিজেদের দিকে নিয়ে আসার আপ্রাণ চেষ্টায় ব্রতী হয়ে উঠেছে।

তবে তৃণমূলের এই মন্তব্য কিছুটা হলেও মতুয়া সমাজের মনে জায়গা করে নিয়েছে। যার ফলে সেই সম্প্রদায়ের মানুষেরা এখন দ্বিধাবিভক্ত হয়ে গিয়েছেন। অনেকেই বলছেন, অমিত শাহ যে কথাই বলুন না কেন, এখনও পর্যন্ত এই মতুয়াদের নাগরিকত্ব দিতে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখা যায়নি বিজেপিকে। স্বাভাবিকভাবেই এই বিষয়টি তুলে ধরে এখন তৃণমূল কংগ্রেস মতুয়াদের ভোট নিজেদের দিকে আনতে কতটা সফলতা লাভ করে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!