এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > মর্মান্তিক! বাংলার বুকে নবিদিবসের শোভাযাত্রা, তিন নাবালকের বিদ্যুৎষ্পৃষ্ট হয়ে করুণ মৃত্যু!

মর্মান্তিক! বাংলার বুকে নবিদিবসের শোভাযাত্রা, তিন নাবালকের বিদ্যুৎষ্পৃষ্ট হয়ে করুণ মৃত্যু!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গতকাল শুক্রবার ইসলামপুরে নবী দিবসের শোভাযাত্রায় বেরিয়ে তড়িতাহত হয়ে মৃত্যু হল তিনজন নাবালক ও একজন নাবালিকার। সেইসঙ্গে এই দুর্ঘটনায় জখম হলো ১২ জন। গতকাল ইসলামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রোট লাগোয়া শিয়ালতোড় এলাকায় এলাকায় এমন একটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে গেলো। আহতদের উদ্ধার করে তাদের চিকিৎসার জন্য দ্রুত ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আহত ১২ জনের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক থাকায় তাদের স্থানান্তর করা হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে। তবে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এই দুর্ঘটনায় আরও বেশি মানুষ আহত হয়েছে, যাদের চিকিৎসা চলছে স্থানীয় নার্সিংহোমে।

নবী দিবসের আনন্দময় মুহূর্তে কিভাবে ঘটে গেল এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা? স্থানীয় সূত্রের খবর, গতকাল নবী দিবস উপলক্ষে শিয়ালতোড় থেকে বেরিয়ে ছিল একটি শোভাযাত্রা। এই শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেছিল অল্পবয়স্ক ছেলে, মেয়েরা। মিছিলের সামনের দিকে একটি পিকআপ ভ্যান ছিল। যেখানে জেনারেটর ও মাইক সেট রাখা ছিল। এই পিকআপভ্যানে বেশ কিছু ছেলেমেয়ে ছিল, আরো কিছু ছেলেমেয়ে পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে সঙ্গে হেঁটে শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছিল। শিয়ালতোড় থেকে ইসলামপুর বাইপাস যাবার পথেই ঘটল এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা।

রাস্তায় থাকা হাইভোল্টেজ বিদ্যুৎবাহী তারে স্পর্শ করে গাড়িতে থাকা ঝান্ডা লাগানো একটি বাঁশ। সঙ্গে সঙ্গে সমস্ত গাড়িটি বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে পরে। ফেটে যায় জেনারেটর। গাড়িতে থাকা ছেলে-মেয়েরা গুরুতর আহত হয়। গাড়ির সঙ্গে সঙ্গে হাঁটতে থাকারাও আহত হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মহম্মদ রাজাব ও অঞ্জলি খাতুনের। গতকালের এই ঘটনায় ১১ বছর বয়স্ক মহম্মদ রাজাব ও ১০ বছর বয়স্ক অঞ্জলি খাতুন ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায়। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল নিয়ে যাবার পথে মৃত্যু হয় ১৪ বছর বয়স্ক তাহিল রেজার। আবার রাজাব ও তাহিল শিয়ালতোড় এলাকার বাসিন্দা হলেও অঞ্জলি বিহারের কিষাণগঞ্জের পোটিয়া থানা এলাকার বাসিন্দা। ঘটনায় আহত ও মৃতদের পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জেলা প্রশাসন। আবার, ঘটনার পর থেকে উধাও হয়ে গেছে পিকআপভ্যানটি।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এ প্রসঙ্গে জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মিনা জানালেন যে, এই দুর্ঘটনায় যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেয়া হবে ও যারা জখম হয়েছে তাদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে। কিন্তু মৃত অঞ্জলি খাতুন বিহারের বাসিন্দা হওয়ায়, তার পরিবারকে সাহায্যর বিষয়টি খতিয়ে দেখবে প্রশাসন। আবার, প্রশ্ন উঠেছে শোভাযাত্রা চলার সময় বাইপাসের রাস্তার উপরে যে বিদ্যুৎবাহী তার ছিল সেটা কেন সরানো হয়নি? তাহলে কি এই শোভাযাত্রার কোন অনুমতি ছিল না? এ বিষয়ে জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা জানালেন যে, শোভাযাত্রার অনুমতির বিষয়টি পুলিশই জানবে। তবে, বাইপাসের যে সমস্ত এলাকায় বিদ্যুতের তার রয়েছে সেগুলি সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। এক এজেন্সিকে দ্রুত এই কাজ শেষ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, এই ঘটনা প্রসঙ্গে ইসলামপুর পুলিস জেলার এসপি শচীন মক্কর জানালেন যে, এটি একটি দুর্ঘটনা ছিল। অল্প বয়সী ছেলেমেয়েরা শোভাযাত্রা বের করেছিল, তাই তারা কোন অনুমতি নেয়নি। এই দুর্ঘটনার পর ইসলামপুরের বিধায়ক আবদুল করিম চৌধুরী ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছেন। এই দুর্ঘটনার কথা তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে বলবেন বলে বাসিন্দাদের জানিয়েছেন। এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় সমগ্র এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!