এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > মমতার প্রাক্তন সৈনিককে মাথায় বসিয়ে মমতার বিরুদ্ধে একুশের মহাযুদ্ধে কোমর বেঁধে নাম পড়ল বিজেপি

মমতার প্রাক্তন সৈনিককে মাথায় বসিয়ে মমতার বিরুদ্ধে একুশের মহাযুদ্ধে কোমর বেঁধে নাম পড়ল বিজেপি



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের মসনদ দখলে তৎপর হয়ে উঠেছে বিজেপি। নির্বাচনের আগাম প্রস্তুতি নিল রাজ্য বিজেপি। একাধিক কমিটি গঠন করে নির্বাচনের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়ল বিজেপি। নির্বাচন পরিচালনার জন্য রাজ্য বিজেপি গঠন করেছে ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট টিম। এই টিমের ইস্তেহার কমিটির ইনচার্জ করা হয়েছে প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ তথা বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরাকে। আবার এর সঙ্গে সঙ্গেই অরাজনৈতিক সংগঠন ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য বিজেপি কমিটি গঠন করেছে। সেই কমিটির ইনচার্যও করা হলো বিজেপি নেতা অনুপম হাজরাকে। ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হবার বিষয়টি এই কমিটি দেখাশোনা করবে।

এভাবে দলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ইস্তেহার কমিটির ইনচার্জ করা হলো মমতার প্রাক্তন সৈনিককে। সেইসঙ্গে তাঁকে দেয়া হলো আরেকটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ কমিটির দায়িত্ব। তাঁকে তৃণমূল বধের বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হলো। এই কমিটির কো-ইনচার্জ করা হলো ডাক্তার সুভাষ সরকারকে। এই কমিটির মধ্যে রয়েছেন বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত, রন্তিদেব সেনগুপ্ত, অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায় প্রমুখ বিশিষ্টবর্গ। ইস্তেহার কমিটির উদ্দেশ্য হল বিজেপি মানুষের কাছে বিকল্প নীতি হিসেবে যা তুলে ধরতে চায়, তা ইস্তেহারের মাধ্যমে প্রকাশ করা। এই কারণে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে একটি বিশেষ ভূমিকা পালন করতে চলেছে এই ইস্তেহার কমিটি।

আবার আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের যুবসমাজ, উদ্বাস্তু সমাজ, মতুয়া সম্প্রদায়কে বিশেষভাবে কাছে টানার চেষ্টা করছে বিজেপি। সমাজের এই তিন সম্প্রদায়কে নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের জন্য এক নতুন কমিটি গঠন করা হলো। যে কমিটির শীর্ষে আনা হলো রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার প্রাক্তন সভাপতি দেবজিৎ সরকারকে। এছাড়া এই কমিটির সদস্য হিসেবে রয়েছেন বিজেপি সংসদ শান্তনু ঠাকুর, জগন্নাথ সরকার।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এছাড়া নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে। যে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে শিশির বাজারিয়াকে। আবার বিজেপি দলের নতুন করে যোগদান বিষয়ে দেখভালের জন্য এক কমিটি গঠন করা হলো। যে কমিটির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে দলের অন্যতম রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসুকে। বুথ দেখাশুনার জন্য একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা হলো। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই কমিটির ইনচার্জ করা হয়েছে বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি বিশ্বজিৎ রায়চৌধুরীকে। আবার প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় রক্ষার জন্য নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। যে কমিটির ইনচার্জ করা হলো বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে। এই কমিটিতে রয়েছেন শিশির বাজোরিয়া, অভিজিৎ দাস, প্রাক্তন আইপিএস আর কে হানডা প্রমুখরা।

এছাড়া, বিজেপি দলের বড় বড় সমাবেশ কর্মসূচি পরিচালনার জন্য নতুন কমিটি গঠন করা হলো। যে কমিটির ইনচার্জ করা হলো বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়কে। আগামী বিধানসভা নির্বাচনের দিকে লক্ষ রেখে রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে এরকম আরো বহু কমিটি গঠন করা হলো। সেই কমিটিগুলির ইনচার্জ ও সদস্যদের নামও সেইসাথে ঘোষণা করা হলো। কিন্তু, সমস্ত বিষয়গুলি এখনো পর্যন্ত দলের অভ্যন্তরে রয়েছে। এখনো এই বিষয়গুলো নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো বিবৃতি দেয়া হয়নি।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!