এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মামলা করতে গিয়ে নিজেই জরিমানার দায়ে পড়লেন প্রাক্তন মেয়র

মামলা করতে গিয়ে নিজেই জরিমানার দায়ে পড়লেন প্রাক্তন মেয়র



সম্প্রতি রাজ্য বিজেপি দল যথেষ্ট বেকায়দায় বলে মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করে চলেছেন রাজ্যের বিজেপি সভাপতি আর তারই মধ্যে এবার প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত হাইকোর্টে মামলা করতে গিয়ে উল্টে নিজেই জরিমানার দায়ে পড়লেন। সম্প্রতি সব্যসাচী দত্ত শাসকদল তৃণমূল থেকে দলবদল করে এসেছেন বিজেপিতে। আর তারপরই এরকম শুকনো বিপদ। আদালতের সময় নষ্ট করার জন্য কলকাতা হাইকোর্ট এই শাস্তির বিধান দিয়েছেন বিজেপির সব্যসাচী দত্তকে।

সূত্রের খবর, সব্যসাচী দত্ত যখন বিধান নগর পৌরনিগমের মেয়র ছিলেন, সেসময় পাঁচটি বহুতল নির্মাণ অবৈধভাবে হচ্ছে বলে অভিযোগ ছিল সব্যসাচী বাবুর কাছে। তিনি ওই চারটি কাজ বন্ধ করে দেওয়ার নোটিশ দেন। এরপরেই বিধাননগর পুরনিগমের বিভাজন শুরু হয়। তৃণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীনই এই বিভাজনের জেরে নিজের মেয়র পদ ত্যাগ করেন সব্যসাচী দত্ত। আর এর কিছুদিনের মধ্যেই তিনি সোজা এসে যোগ দেন বিজেপিতে। অন্যদিকে নতুন মেয়র হন কৃষ্ণা চক্রবর্তী।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সম্প্রতি প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত কলকাতা হাইকোর্টে অভিযোগ করেন যে পাঁচটি অবৈধ নির্মাণ তিনি মেয়র থাকাকালীন বন্ধ করে দিয়েছিলেন, সেগুলি তাঁর মেয়র পদ ছাড়ার পর পুনরায় বিধাননগর এলাকায় নির্মাণ শুরু হয়েছে। এই মামলার শুনানি পর্ব চলে বেশ কিছুদিন যাবৎ। আর তারপরেই কলকাতা হাইকোর্ট প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তকে আদালতকে বিভ্রান্ত করার অভিযোগে 11 হাজার টাকার জরিমানা ধার্য করেন। মামলার শুনানি শেষে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থা পরিষ্কার করে জানিয়ে দেন, অবৈধ নির্মাণ মামলার জরুরি শুনানির কোনো প্রয়োজন ছিল না। সেক্ষেত্রে সব্যসাচী দত্ত ইচ্ছাকৃতভাবেই আদালতকে বিভ্রান্ত করেছেন।

এই রায় বেরোনোর পর সব্যসাচী দত্তর সঙ্গে যোগাযোগ করতে গেলে তাঁর সাথে যোগাযোগ সম্ভব হয়না। ইতিমধ্যে জানা গেছে জরিমানার 11 হাজার টাকা তাঁকে বিধাননগর পৌরনিগমে জমা করতে হবে। অন্যদিকে, এই রায় বেড়ানোর পর অবশ্য শাসক মহল থেকেও কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। অন্যদিকে, রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করে সব্যসাচী দত্ত শাসক দলকে বিপাকে ফেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি নিজেই বিপাকে পড়লেন। আপাতত এই জরিমানার সূত্র ধরে রাজ্য বিজেপি দল কি বক্তব্য রাখে, তা জানার জন্য উৎসুক রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
Facebook Friends
error: Content is protected !!