এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > মমতাকে হারাতে ‘ষড়যন্ত্র’ খোদ মমতা ঘনিষ্ঠ মন্ত্রীর মায়ের? বিস্ফোরক অভিযোগে টালমাটাল তৃণমূল

মমতাকে হারাতে ‘ষড়যন্ত্র’ খোদ মমতা ঘনিষ্ঠ মন্ত্রীর মায়ের? বিস্ফোরক অভিযোগে টালমাটাল তৃণমূল



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – অতীতে যে কোনো নির্বাচনে তৃণমূলের অন্তর্ঘাতের কারণে তৃণমূল প্রার্থীরা বিভিন্ন জায়গায় পরাজিত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠতে দেখা গেছে। তবে 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে যাতে সেই রকম কোনো ঘটনা না ঘটে, তার জন্য আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু তা সত্ত্বেও নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর যে সমস্ত জায়গায় ঘাসফুল শিবিরের প্রার্থীরা পরাজিত হয়েছেন, সেই সমস্ত জায়গায় বেশকিছু তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে দল বিরোধী কাজের অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে।

যার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু দলীয় নেতা বিজেপিকে ভোটের সময় সুবিধা পাইয়ে দিয়েছেন বলে তৃণমূলের অন্তর্তদন্তের মধ্য দিয়ে উঠে এসেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন জেলা নেতৃত্বকে নির্দেশ দিয়ে সেই সমস্ত নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ঘাসফুল শিবির। কিন্তু কেউ স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেনি তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী মায়ের বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতী করার অভিযোগ উঠবে। তবে এবার সেই রকমই অভিযোগ উঠতে শুরু করল শাসকদলের অন্দরমহলে। যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

বস্তুত, সম্প্রতি রাজ্য মন্ত্রিসভায় জায়গা পেয়েছেন হেভিওয়েট বিধায়ক শিউলি সাহা। কিন্তু বিগত বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রামে তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরাজিত করতে সেই শিউলি সাহার মা বনশ্রী খাড়া উদ্যত হয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে নন্দীগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তথা মন্ত্রীর মা বনশ্রীদেবীর বিরুদ্ধে তৃণমূলের একাধিক পঞ্চায়েত সদস্য অনাস্থা প্রস্তাব জমা দিয়েছেন বলে খবর।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বাভাবিক ভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য তথা তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান যেভাবে স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরাজিত করতে বিধানসভা ভোটে কাজ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে, তাতে ব্যাপক অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে ঘাসফুল শিবির। তৃণমূলের ভেতরে অন্তর্ঘাত বেশ কিছুদিন ধরেই শুরু হয়েছে বলে এতদিন অভিযোগ শোনা যেত। কিন্তু এবার সরাসরি যেভাবে মন্ত্রীর মায়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনার উদ্যোগ নিল তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যরা, তাতে এই ঘটনা কার্যত বেনজির বলেই মনে করছেন একাংশ।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, সত্যিই এই ঘটনা রাজ্য রাজনীতিকে নাড়িয়ে দিয়েছে। নন্দীগ্রামে শেষ পর্যন্ত জোর টক্কর লড়াইয়ে শেষ হাসি হেসেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে তৃণমূলের পক্ষ থেকে প্রথম থেকেই চক্রান্তের অভিযোগ তোলা হয়েছে। এমনকি দলের একাংশ দলে থেকে দলবিরোধী কাজ করেছেন বলেও অভিযোগ করা হচ্ছে।

আর এই পরিস্থিতিতে রাজ্য মন্ত্রিসভায় জায়গা পাওয়ার শিউলি সাহার মায়ের বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরাজিত করানোর জন্য কাজ করার অভিযোগ তুলতে শুরু করেছে ঘাসফুল শিবিরের একাংশ। যার ফলে মায়ের বিরুদ্ধে যদি এই অভিযোগ সত্যি হয়, তাহলে মেয়ে তথা মন্ত্রী শিউলি সাহার রাজনৈতিক ভাগ্যাকাশে বড় ফাটল নেমে আসতে পারে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!