এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মুকুল রায় হাত বাড়ালেই দলনেত্রীর বাড়তি নজরে

মুকুল রায় হাত বাড়ালেই দলনেত্রীর বাড়তি নজরে



মুকুল রায় দল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়ার পর রাজনৈতিক মহলের ধারণা ছিল তাঁর সাথে সাথে বড় ভাঙ্গন ধরতে পারে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসে। মুকুল রায়ের হাত ধরে বেরিয়ে যেতে পারেন একঝাঁক বিধায়ক-সাংসদ। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেছে একদম বিপরীত চিত্র, একজন বিধায়ক-সাংসদও দল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যান নি। যদিও মুকুলবাবু ইঙ্গিতবাহী ভাবে বলেছেন, দেখুন না আগে কি হয়! আর এরপর দলীয় বৈঠকে দলনেত্রীর করা এক নিরীহ প্রশ্নই রাজনৈতিক গুঞ্জন বাড়িয়ে দিয়েছে, যে এখনই কেউ দল ছেড়ে না গেলেও, ভাঙ্গনের আশঙ্কা রায়েই গিয়েছে?
বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে এক দলীয় ঘরোয়া বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী হঠাৎ সবার সামনেই নাম না করে একদা ‘মুকুল শিবিরের লোক’ বলে পরিচিত এক মহিলা বিধায়ককে নাম না করে প্রশ্ন করেন, এখনও কি ফোন করে? সম্প্রতি কথা বলছে কি? দলনেত্রী হঠাৎ এমন প্রশ্ন করায়, ঘরের মধ্যে অস্বস্তি স্পষ্ট হয়ে ওঠে বলে খবর। যদিও ওই বিধায়ক নাম না করেই জানান, নম্বরই ডিলিট করা হয়ে গেছে। আর এরফলেই রাজনৈতিক গুঞ্জন বেড়ে গেছে, তাহলে ‘মুকুল শিবিরের লোকেদের’ উপর এখন আর ঠিক বিশ্বাস নেই? নাকি এটা দলকে বার্তা দেওয়া যে দলনেত্রীকে টপকে কিছুই করার উপায় নেই, তিনি সবই নজরে রাখেন। যদিও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী পরে জানান, মুখ্যমন্ত্রী সেরকম নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি, আড্ডার মেজাজে হাওয়ায় ছোড়ার মতো করেই বলেছেন, খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়। এমনকি এও জানা যাচ্ছে, মুখ্যমন্ত্রী পরে আলাদা করে ডেকে নিয়ে কথাও বলেন ওই বিধায়কের সঙ্গে। যদিও এরপরেও দলের অভ্যন্তরেই মুকুল-আতঙ্ক কেটেও কাটছে না বলেই সূত্রের খবর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!