এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > যতদিন বেঁচে আছি নরেন্দ্র মোদী আর বিজেপিকে ক্ষমা করব না: মমতা ব্যানার্জি

যতদিন বেঁচে আছি নরেন্দ্র মোদী আর বিজেপিকে ক্ষমা করব না: মমতা ব্যানার্জি



লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজার অনেক আগে থেকেই বাংলার প্রতি বাড়তি নজর দিয়ে বাংলার 42 টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিপুল সংখ্যক আসন নিজেদের দখলে রাখার জন্য রাজ্য নেতৃত্বকে টার্গেট বেঁধে দিয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এমনকি নির্বাচনী প্রচারে বাংলায় এসে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া ভাষায় আক্রমণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

অন্যদিকে নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে রাজ্যের প্রায় প্রতিটি নির্বাচনী জনসভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে একহাত নিতে দেখা যাচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। আর এবার বীরভূম ও বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের দুই তৃণমূল প্রার্থীদের সমর্থনে বীরভূমের সিউড়ির সভা থেকে কেন তাকে বারবার কটাক্ষ করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী? সেই সমস্ত রহস্যর উন্মোচন করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন তিনি বলেন, “উনি রোজ একবার করে রাজ্যে আসছেন। কারণ কি জানেন? বাংলাই ওনার সব থেকে বড় বিপদের জায়গা। উনি জানেন পারলে এই মেয়েটাই ওনাকে হটাতে পারে। উনি যত আমাদের গালাগাল দেবে, আমাদের ভোট তত বাড়বে। সবাই চুপ করে থাকলেও নরেন্দ্র মোদী মাথায় রাখবেন, আমি চুপ করে থাকব না। আমি যতদিন বেঁচে থাকব, নরেন্দ্র মোদী আর বিজেপিকে ক্ষমা করব না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, বীরভূমের সিউড়ির এদিনকার সভা থেকে নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক মন্তব্য করে লোকসভা নির্বাচনে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে কঠোর লড়াইয়ের বার্তা দিলেন তৃণমূল নেত্রী।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে সম্প্রতি অক্ষয় কুমারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাঝেমধ্যেই তাকে তার পছন্দ মত কুর্তা এবং মিষ্টি পাঠান” বলে জানালে তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তীব্র সোরগোল পড়ে যায়।

এদিন সেই প্রসঙ্গেও মুখ খোলেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন, “এটা সৌজন্যতা। আর এই সৌজন্যতাকে নরেন্দ্র মোদী ভোট বাজারে মার্কেটিং করছেন। কালকে কুর্তা পাঠানোয় দোষ কোথায়? আমি পুজা পার্বনে একশো লোককে এরকম জিনিস পাঠাই। কিন্তু তা নিয়ে আমি প্রচার করি না, ওরা শুধু প্রচার করতে ভালোবাসে।”

অনেকে বলছেন, নরেন্দ্র মোদী এই কুর্তা এবং মিষ্টির কথা বলে তৃণমূল নেত্রীর ওপর চাপ সৃষ্টি করার কথা ভাবলে এদিন সেই সমস্ত কিছুকে উড়িয়ে দিয়ে পুরো ঘটনাকে সৌজন্যতা বলেই আখ্যা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অন্যদিকে গুজরাটের দাঙ্গার কথা তুলে ধরে নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রীর এদিন পুনঃমুষিক গল্প শুনিয়ে জনতার উদ্দেশ্যে বলেন,”নরেন্দ্র মোদিকেও লোকে ঠিক সেভাবেই উপরে ফেলবে।” সব মিলিয়ে এবার কেষ্ট গড়ে দাঁড়িয়ে কড়া ভাষায় বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!