এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুখ্যমন্ত্রীর দেখানো পথেই কাজে গতি আনতে কড়া অনুশাসন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

মুখ্যমন্ত্রীর দেখানো পথেই কাজে গতি আনতে কড়া অনুশাসন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের



কাজই তাঁর প্রান। কর্মচঞ্চল জীবনই তিনি পছন্দ করেন। আর তাইতো ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মানুষের কাজে কোনো ঢিলেমি যে তিনি বরদাস্ত করবেন না তা সকলকে স্পষ্ট ভাষায় বুঝিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার মুখ্যমন্ত্রীরই মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ন মুখ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গলাতেও শোনা গেল সেই একই কথা।

সূত্রের খবর, রবিবার নদীয়ার কৃষ্ননগরের রবীন্দ্রভবনে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের প্রথম সম্মেলন অনুষ্টিত হল। জানা যায়, এই কর্মচারী সংগঠনের দুই নেতা দিব্যেন্দু রায় এবং তপন গড়াইয়ের মধ্যে বিবাদ দীর্ঘদিনের। এ দিনের মঞ্চেও সেই বিবাদের ছাপ আরও স্পষ্ট হয়ে উঠল সেই তপন গড়াইয়ের অনুপস্থিতিতে। এদিন বক্তব্য রাখতে উঠে সরকারী কর্মচারী সংগঠন যে একটাই থাকবে সেই ব্যাপারে দলের অভিমত স্পষ্ট করে কেন তপন গড়াই উপস্থিত হলেন না সেই খবর তিনি নেবেন বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

আর এরপরেই তিনি বলেন, “নির্বাচনের সময় অনেক কর্মচারীর ডিউটিতে যাওয়ার অনীহা থাকে, এসব এখানে চলবে না। এই সরকারকে ঘিরে মানুষের অনেক প্রত্যাশা রয়েছে। তাই মানুষের কাজে কখনই দেরি করা যাবে না। অনলাইন সিষ্টেম হওয়া সত্তেও কেন এত দেরি হচ্ছে। আপনি দেরি করলে আপনার ক্ষেত্রেও একই অবস্থা হবে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি কৃষ্ননগর মহিলা কলেজে অধ্যক্ষা বনাম অধ্যাপিকাদের সংঘাত প্রসঙ্গে দ্রুত সমাধান করার ব্যাপারে সওয়াল করেন শিক্ষামন্ত্রী। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সামনে লোকসভা ভোট। আর এই লোকসভা ভোটের আগে প্রবীন মানুষের পেনশনে যাতে কোনো বিলম্ব না হয় তার কারনে এবার কর্মচারী সংগঠনে কড়া বার্তা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!