এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কুমারস্বামীর শপথগ্রহনের ‘মধ্যমনি’ হয়ে ২০১৯ এর দামামা বাজাতে চান মমতা ব্যানার্জি

কুমারস্বামীর শপথগ্রহনের ‘মধ্যমনি’ হয়ে ২০১৯ এর দামামা বাজাতে চান মমতা ব্যানার্জি



অব্যর্থ না হলেও মিলে গেছে ভবিষ্যতবাণী! কর্ণাটকের বিধানসভা নির্বাচনের পরবর্তীতে সেখানে ত্রিশঙ্কু জোট হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। সেখানে জেডিএস নেতা কুমারস্বামী একটা বড় ভূমিকা গ্রহণ করতে পারেন। নির্বাচনের প্রসঙ্গে এমনটাই ছিলো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভবিষ্যত বাণী। সম্প্রতি একটি সংবাদ চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একথাই  জানিয়েছিলেন বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাঁর বক্তব্যকে কেন্দ্র করে হৈচৈ দেখা গিয়েছিলো রাজনৈতিক মহলে। প্রসঙ্গত কর্ণাটকে নির্বাচনী ফল প্রকাশের পরে ত্রিশঙ্কু পরিস্থিতি তৈরী হয়। কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেয়েও বৃহত্তম দল হিসেবে মাত্র আড়াই দিন রাজ্যের শাসন ভার সামলে শেষ অবধি হাল ছাড়তে বাধ্য হলো। এখন কংগ্রেস, জেডিএসএর সমর্থনে সরকার গঠন করছে। আর শর্ত অনুসারে মুখ্যমন্ত্রী পদে দ্বিতীয়বারের জন্যে শপথ নিতে চলেছেন এইচ ডি কুমারস্বামী।  শনিবার বিজেপির সরকার সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হলে মুখ্যমন্ত্রী পদে ইস্তফা দিতে বাধ্য হন বিজেপি দলের সদস্য আড়াই দিনের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা। এই কথা জানার পরেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী জেডিএস কে জয়ের অভিনন্দন জানান। একটী সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে এরপরে তিনি লিখলেন , ” কুমারস্বামীর তরফে সোমবার তাঁর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।” কর্ণাটক নির্বাচনের আগেও ত্রিপুরা নির্বাচনের আগে প্রমাণ পাওয়া গিয়েছিলো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুরদৃষ্টিতার। সেখানেও তিনি বলেছিলেন সেই রাজ্যে বাম জমানার অবসান আসন্ন। যদিও ত্রিপুরায় সিপিএম সরকারের পতনের পরে  তিনি বলেছিলেন, “ত্রিপুরার সিপিএম জিতলে খুশি হতাম।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!