এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “মানবতার তোষন করি।” বিরোধীদের চুপ করিয়ে বড়সড় দাবি মুখমন্ত্রীর, জোর শোরগোল !

“মানবতার তোষন করি।” বিরোধীদের চুপ করিয়ে বড়সড় দাবি মুখমন্ত্রীর, জোর শোরগোল !



রাজ্যের ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্লাবগুলোকে টাকা দিয়েছেন। যা নিয়ে বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে রাজ্যের শাসক দলকে। বিরোধীদের দাবি ছিল, ক্লাবগুলোকে টাকা দিয়ে সরকার বা শাসক দল তোষন প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। একইভাবে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ইমামদের রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ভাতা দেওয়া নিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপি সহ বাম এবং কংগ্রেসের মত রাজনৈতিক দলগুলো। আর এবার বিরোধীদের এই অভিযোগকে কার্যত খন্ডন করে, তিনি কাদের তোষণ করেন, তা স্পষ্ট করে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার কলকাতার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে ভারত সেবাশ্রম সংঘের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী প্রণবানন্দজীর জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠান সাধিত হয়। আর সেখানে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি কাদের তোষণ করেন, তা স্পষ্ট করে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি বলেন, “কেউ কেউ বলেন, আমি মুসলমান তোষণ করি। কিন্তু আমি আসলে  বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই কথা বলে পরোক্ষে বিরোধীদের তোষন নিয়ে যে কটাক্ষ, তাতে জল ঢেলে দিলেন।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিকে এদিনের অনুষ্ঠান থেকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, “আজকাল কেউ কেউ উদ্ভট ধর্মের কথা বলে। যাদের ভাল লাগবে ওদের তারা রাখবে। আর যাদের ভাল লাগবে না তাদের বের করে দেবে। আমরা ওই ধর্মে বিশ্বাসী নই।” অন্যদিকে নিজের শিকাগো সফর যেভাবে বাতিল করা হয়েছে, তা নিয়েও আক্রমন শানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমাকে শিকাগো থেকে স্বামীজীর অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। আমি সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু পরে আমাকে জানানো হয় অনুষ্ঠানটা বাতিল করা হয়েছে। আমি কিছু মনে করিনি। কারণ আমি বুঝেছি, ওদের উপরে চাপ তৈরি করা হয়েছিল।”

তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে যা যা কথা বলেছেন, তার মধ্যে সবথেকে তাৎপর্যপূর্ণ “তিনি মানবতার তোষন করেন।” কেননা প্রায় প্রতি নির্বাচনেই বিরোধীরা দাবি করেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভোটব্যাঙ্ক অটুট রাখতে সমস্ত সম্প্রদায়কে তোষণ করছেন। কিন্তু এদিন বিরোধীদের বক্তব্যকে কার্যত খন্ডন করে তিনি যে মানবতার ধর্মকে সবথেকে বেশি ভালোবাসেন, তা তুলে ধরার চেষ্টা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যা পৌরসভা ভোটের মুখে বঙ্গ রাজনীতির পরিস্থিতিকে অনেকটাই সরগরম করে তুলল বলেই দাবি ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!