এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মমতা-অভিষেকের যুগলবন্দিতে দলের তরুণ প্রজন্মকে তুলে আনতে চলেছে শাসকদল

মমতা-অভিষেকের যুগলবন্দিতে দলের তরুণ প্রজন্মকে তুলে আনতে চলেছে শাসকদল



রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ সমীকরণ তথা ভবিষ্যতের লক্ষ্য স্পষ্ট হয়ে গেল আসন্ন কর্মসূচিতে। আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি হাওড়ার ডুমুরজলা স্টেডিয়ামে শাসকদলের দুই শাখা সংগঠনের ডাকা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে হাজির থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী স্বয়ং। লোকসভা ভোট তথা পঞ্চায়েত ভোটে রাজ্যে রেকর্ড পরিমান আসনে জেতার লক্ষ্যমাত্রা স্থির হয়েছে রাজ্যের শাসকদলের পক্ষ থেকে আর তা স্পর্শ করতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তথা দলনেত্রী স্বয়ং ভরসা রাখতে চলেছেন দলের ছাত্র-যুবনেতাদের উপর বলেই সূত্রের খবর। আর দলনেত্রীর এই বিশাল কর্মকান্ড সামলানোর দায়িত্ত্ব পড়েছে শাসকদলের মূল রাজনৈতিক দলের কোনো সাংগঠনিক দায়িত্ত্বে না থাকা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে। ফলে তৃণমূল কংগ্রেসে তিনিই যে এখন অঘোষিত দুনম্বর তা জলের মত পরিষ্কার হয়ে গেল দলের নেতা-কর্মী থেকে শুরু করে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের কাছে।
শাসকদল সূত্রে জানা যাচ্ছে, দলনেত্রীর নির্দেশ খুব স্পষ্ট। আগামী ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের মধ্যে রেকর্ড সংখ্যক আসন জিতে কেন্দ্রের অন্যতম নির্ণায়ক শক্তি হয়ে ওঠা। আর তা করতে দলের ছাত্র-যুবনেতাদের গুরুত্ত্ব অপরিসীম হয়ে উঠবে। কেননা রাজ্যে বর্তমানে বিরাশি ভোটের বিন্যাস পাল্টে গেছে। একদিকে যেমন বিজেপির ভোট বাড়ছে, তেমনই বাংলায় বিজেপির আসন সংখ্যা বাড়াতে মরিয়া কেন্দ্রের শাসকদল। বিজেপির বিরুদ্ধে ধর্মীয় বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগে সরব হয়েছেন মমতা ব্যান্ডওয়াপধ্যায়। রাজ্যে হিন্দুত্ব রাজনীতির আগ্রাসন রুখতে দলের তরুণ প্রজন্মকেই অস্ত্র করতে চাইছেন তিনি। এরই প্রেক্ষিতে আগামী মাসের গোড়ায় ছাত্র-যুব কর্মীদের নিয়ে এই সভার আয়োজন করা হয়েছে। একদিকে যেমন সাম্প্রদায়িক রাজনীতির মোকাবিলায় বার্তা দেবেন তিনি, অন্যদিকে এরাজ্যের উন্নয়নকে হাতিয়ার করে কেন্দ্রকে আক্রমণ শানানোর পাঠ দেবেন তৃণমূল নেত্রী বলে জানা যাচ্ছে। আর তাই আগামীদিনের দলীয় পতাকা যাঁদের হাতে থাকবে তাঁদের রাজনৈতিক পাঠ দিতে স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবার আসরে নামছেন। শাসকদল সূত্রে জানা যাচ্ছে, ছাত্র-যুব সম্মেলনে প্রতিনিধি হয়ে যাঁরা আসবেন, তাঁদের সিংহভাগই তৃণমূল স্তরে সাংগঠনিক কাজে যুক্ত, তাই দলের রাজনৈতিক ভাবনা তাঁদের কাছে নিজে তুলে ধরতে চান স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!