এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > মালদা বিস্ফোরণকান্ড খতিয়ে দেখতে এলাকায় পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

মালদা বিস্ফোরণকান্ড খতিয়ে দেখতে এলাকায় পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – মালদা বিস্ফোরণ কাণ্ড নিয়ে ইতিমধ্যেই জমজমাট বাংলার রাজনৈতিক মহল। বৃহস্পতিবার দিন দুপুরে মালদার সুজাপুরে একটি প্লাস্টিক কারখানার ব্যাপক বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিলো যে নিহতদের ছিন্নভিন্ন দেহাবশেষ একশো দুশো মিটার দূরত্বে গিয়ে পড়ে। এই ঘটনায় তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। বিস্ফোরণের তীব্র আওয়াজে এলাকাবাসীরা দিশাহারা হয়ে পড়েন। অন্যদিকে রাজ্যের বিরোধী শিবির বিজেপি ইতিমধ্যেই অভিযোগ তুলেছে, প্লাস্টিক কারখানার নামে সেখানে মজুদ ছিল বোমা কিংবা বেআইনি কিছু। যার জেরে এত বড় বিস্ফোরণ হয়েছে। এলাকায় পৌঁছান রাজ্যের পুরমন্ত্রী।

অন্যদিকে বিস্ফোরণের খবর পেয়ে তড়িঘড়ি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে কলকাতা থেকে কপ্টারে করে উড়ে যান মালদায় রাজ্যের পুর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মালদা শহরের ঘোড়াপীর এলাকা থেকে তিনি সড়কপথে কালিয়াচক থানার সুজাপুর এলাকায় পৌঁছান বলে জানা গিয়েছে। সেখানেই তিনি রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী, রাজ্যসভার সাংসদ মৌসম নুর সহ অন্যান্য নেতৃত্বদের সাথে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি মুখোমুখি হন সাংবাদিকদের এবং সেখানেই তিনি জানান, এটি একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে এবং তাতে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তাঁদের চিকিৎসা চলছে বলে তিনি জানান। অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মৃত এবং আহতদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন ইতিমধ্যেই। ক্ষতিপূরণের কথা ঘোষণা করে মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সরকারের পক্ষ থেকে বার্তা দেন, মৃত এবং আহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর। অন্যদিকে বিজেপি এই দুর্ঘটনার তদন্তে এনআইএর হস্তক্ষেপের দাবি করে। এ প্রসঙ্গে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম রীতিমতো কটাক্ষ করেন এদিন বিজেপির প্রতি। তাঁর মতে, গেরুয়া শিবির এনআইএ এবং সিবিআইকে রাজনৈতিক কাজে লাগাচ্ছে। এই এজেন্সিগুলি দেশের সুরক্ষার জন্য রয়েছে বলে তিনি জানান। পাশাপাশি বিজেপি যে এই বিস্ফোরণকাণ্ডে ঘিরে রাজনীতি করছে সেই কথাও বলেন তিনি।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে মালদা বিস্ফোরণ কান্ড বাংলার রাজনীতিতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। ইতিমধ্যেই এই বিস্ফোরণকাণ্ডে রাজ্য সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন রাজ্যপাল এবং রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সবমিলিয়ে মালদা বিস্ফোরণকাণ্ড আগামী দিনে রাজ্য রাজনীতিতে যে উল্লেখযোগ্য বিষয় হতে চলেছে সে বাপারে কোন সন্দেহ নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে রাজ্য সরকার কোনো ফাঁক রাখতে চাইছে না বলে দাবী অনেকের। আর সেকারণেই তড়িঘড়ি কলকাতা ছেড়ে মালদা পৌঁছালেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী। আপাতত এই বিস্ফোরণকাণ্ডের তদন্তে নেমেছে রাজ্য পুলিশ। নজর থাকবে তদন্তের ফলাফলের ওপর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!