এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভোরের নামাজের সময় অতর্কিতে পুলিশের আক্রমণ অনশনকারী মাদ্রাসা শিক্ষকদের ওপর, তুলকালাম প্রেসক্লাব চত্বর

ভোরের নামাজের সময় অতর্কিতে পুলিশের আক্রমণ অনশনকারী মাদ্রাসা শিক্ষকদের ওপর, তুলকালাম প্রেসক্লাব চত্বর



এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের টানা 29 দিন অনশনের পর তারা নিজেদের অনশন তুলে নিলে গত বুধবার থেকে প্রেসক্লাবের সামনে চাকরির দাবিতে অনশন অবস্থানে বসেন মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের বেশ কয়েকজন চাকরিপ্রার্থী। কিন্তু এবার সেই অনশনরত চাকরিপ্রার্থীদের জোর করে তুলে দেওয়া হয়েছে পুলিশের তরফে বলে অভিযোগ করতে শুরু করলেন সেই মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনে চাকরি প্রার্থীরা।

তাদের দাবি, বুধবার অনশনে বসার সময় তাদের পুলিশের পক্ষ থেকে উঠে যেতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তারা তা না শোনায় বৃহস্পতিবার ফের পুলিশকর্তারা এসে তাদের হুঁশিয়ারি দিয়ে যান। কিন্তু তারপরও তারা তারা অবস্থান থেকে না নড়ায় শুক্রবার ভোরে যখন নামাজ চলছিল, ঠিক তখনই তাদের লাঠিপেটা করে এই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশের বিরুদ্ধে এদিন প্রেসক্লাবে সাংবাদিক বৈঠক করে অভিযোগ করলেন সেই মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের চাকরিপ্রার্থীরা।

সূত্রের খবর, এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনে চাকরিপ্রার্থীরা বলেন, “আন্দোলনকারীদের 5 জনকে পুলিশ তুলে নিয়ে গিয়ে অত্যাচার করার পাশাপাশি মুচলেকা লিখিয়ে নিয়েছে যে, আগামী এক সপ্তাহ তাদের যেন কলকাতার রাজপথে দেখা না যায়। পাশাপাশি এই ঘটনায় প্রেসক্লাব চত্বরে 144 ধারা জারি করেছে প্রশাসন।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে অনশনরত চাকরিপ্রার্থীদের মুখে এহেন কথা শুনেই 3 এপ্রিল নবান্ন অভিযানের ডাক দিয়েছে সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন। পাশাপাশি পুলিশের নির্মম অত্যাচারের পরিপ্রেক্ষিতে এই গোটা ঘটনার নিন্দা করেছে বামফ্রন্টও।আন্দোলনকারীদের দাবি, হয় এসএসসির মাধ্যমে কাউন্সেলিং করে তাদের সবাইকে চাকরি দিতে হবে, আর তা না হলে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান আবদুর রউফকে পদত্যাগ করতে হবে।

তবে সম্প্রতি এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের অনশনের পর রাজ্যের যে কিছুটা হলেও মুখ পড়েছে সেই আশঙ্কায় এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে মাদ্রাসার চাকরিপ্রার্থীদের এই অনশনে যে রাজ্যের আরও বিরম্বনা বাড়বে সেই কথা মাথায় রেখেই পুলিশ- প্রশাসনের তরফে অনশন প্রার্থীদের উঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়ে যেভাবে মাদ্রাসা কমিশনে চাকরিপ্রার্থীরা নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকলেন তাতে রাজ্যের অস্বস্তি যে আরও বাড়ল সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!