এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মাদ্রাসায় পোশাকবিধি চালু করতে চেয়ে বিতর্ক বাড়িয়ে দিলেন মন্ত্রী

মাদ্রাসায় পোশাকবিধি চালু করতে চেয়ে বিতর্ক বাড়িয়ে দিলেন মন্ত্রী



মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের জন্যে পোষাক বিধি চালু করে সংবাদ শিরোনামে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি সরকার। রাজ্য সরকারের এহেন পদক্ষেপের বিরোধীতায় সামিল হলেন মুসলিম ধর্মগুরু ও শিক্ষাবিদরা। মাদ্রাসা পড়ুয়াদের ঐতিহ্যশালী পোশাকে বদল আনার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সওয়াল করেছেন সুফিয়ান নিজামি। সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি প্রশ্ন তোলেন, ” মাদ্রাসা ও কলেজের পোশাক বিধির সিদ্ধান্ত সরকার নেয় না। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানই বিষয়টি স্থির করে। এক্ষেত্রে মাদ্রাসার প্রতি এভাবে বৈষম্য করা হচ্ছে কেন?” একই প্রশ্নে সরব মাদ্রাসা দারুল উলম ফিরাঙ্গি মহল।

প্রিয় বন্ধু বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ – Priyo Bandhu Bengali

—————————————————————————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই প্রসঙ্গে ধর্মগুরু মহম্মদ হারুন বললেন, ” মাদ্রাসার পক্ষে ভালো কী হবে, সেই সিদ্ধান্ত গ্রহণের ভার তাঁদের ওপরই ছেড়ে দেওয়া উচিত। মুসলিম শিশুদের মাত্র ১ থেকে ২ শতাংশই মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে। সরকারের এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনও কারণ নেই।” প্রসঙ্গতঃ চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশ সরকার মাদ্রাসা পড়ুয়াদের জন্য নয়া পোশাক বিধি চালু করেছে। রাজ্যের মাদ্রাসাগুলিকে প্রধানমন্ত্রীর ‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ’ এর মধ্যে অন্তর্ভূক্ত করার লক্ষ্যেই উত্তরপ্রদেশ সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও এই প্রসঙ্গেঃ রাজ্যের মন্ত্রী মহসিন রাজা বললেন, “অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতোই মাদ্রাসাগুলিকে গড়ে তোলা সরকারের লক্ষ্য। মাদ্রাসার পড়ুয়ারা এখনও পর্যন্ত কুর্তা ও পাজামা পরে। এক্ষেত্রে পোশাক বিধি মাদ্রাসাগুলিকে আরও বেশি করে প্রথাগত করে তুলবে। আমরা পড়ুয়াদের স্কুলের মতই ইউনিফর্ম দেব।” পোষাকবিধি নিয়ে বিতর্কের পরে এখনও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে পাকাপাকি কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
Facebook Friends
error: Content is protected !!